ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

মহানগর

যতো প্রভাবশালীই হোক, আইন প্রয়োগে কঠোর হবে পুলিশ: ডিএমপি কমিশনার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২:৩১ পিএম

ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, রাজধানীতে অবৈধ জুয়ার আড্ডা চলতে দেয়া হবে না। এসব জুয়ার বোর্ড, ক্যাসিনো পরিচালনা ক্ষেত্রে যতো প্রভাবশালীরাই জড়িত থাকুক না কেন আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে পুলিশ কঠোর হবে। র্যাব অভিযান শুরু করেছে পুলিশও করবে। ইতোমধ্যে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার জুয়ার বোর্ড ও ক্যাসিনোর তালিকা করা শুরু হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। ডিএমপি কমিশনার বলেন, আমি এই সপ্তাহেই কমিশনার হিসেবে কাজ শুরু করেছি। যারা এই বিষয় দেখেন তাদের নির্দেশ দিয়েছি, কোথায় কী হচ্ছে, কারা পরিচালনা করছে তা তালিকা করে জানাতে। তারা কাজ করছেন। ইতোমধ্যে একটি জোনের তালিকা আমি পেয়েছি। অন্য জোনের তালিকাও করা হচ্ছে। র‌্যাব যেমন অভিযান শুরু করেছে তেমনি পুলিশের ভূমিকাও একই রকম। স্পষ্ট করে বলছি, রাজধানীর কোথাও জুয়ার বোর্ড কিংবা ক্যাসিনো চলতে দেয়া হবে না।

জুয়ার বোর্ড কিংবা ক্যাসিনোর সাথে চলছে মাদক সেবন। সেখানে র‌্যাবের অভিযানে মাদকের উপস্থিতি দেখা গেছে। মাদক সেবনরত অবস্থাতেও অনেককে দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে কমিশনার বলেন, ক্যাসিনোতে যারা জুয়া খেলতে আসে তারাই মাদক সেবন করছে। ক্যাসিনো যদি বন্ধ হয়ে যায় তাহলে সেখানে মাদক সেবনও বন্ধ হবে। ক্যাসিনো বন্ধ করেও যদি কেউ মাদকের কারবার চালানোর চেষ্টা করে তবে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রাজধানীতে অনেক ডিজে পার্টি পার্টি হয়, সেখানে মাদক সেবনের পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের আনাগোনাই বেশি। সে ব্যাপারে ডিএমপি কী ধরনের পদক্ষেপ নেবে জানতে চাইলে কমিশনার বলেন, নির্মল বিনোদন হলে পুলিশ সহযোগিতা করবে। কিন্তু সেখানে বিনোদনের নামে যদি অশালীন ও অবৈধ কিছু চলে, মাদক সেবন হয় তাহলে সেখানেও একই রকম পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। নজরদারিতে থাকবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
M nasiruddin shah ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৬:৩৩ পিএম says : 0
সম্মানিত কমিশনার মহোদয় মাদক সত্রাস মদ জুয়া নারী সমস্ত অনৈতিক কার্যকলাপ বন্ধ করা আইন শৃংখলা বাহিনীর মাত্র ছব্বিশ ঘন্টার কাজ র‍্যাব পুলিশ অন্যান্য আইন শৃংখলা শতভাগ সফল হবেন যদি রাজনৈতিক চাপমুক্ত অভিযান পরিচালনা করা য়ায়। ইতিমধ্যে দেশের মানুষ জানতে পেরেছেন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী দেশের আইন শৃংখলা রাজনৈতিক শৃঙ্খলা সাধারন মানুষের জীবনের নিরাপত্তা দুর্নীতি মুক্ত মাদক মুক্ত দেশ গড়তে চাই। কমিশনার মহোদয় আপনি অবশ্যই পারবেন সেই মেধা যোগ্যতা সততা সাহস আপনার আছে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা আজ বিশ্বের প্রভাবশালী নেতা দের একজন হারানোর পাওয়ার কিছুই তাহার নেই। শুধু বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ক্ষুদ্রা দারিদ্র্য মুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন। দেশ জাতির আশা প্রত্যাশা শান্তি শৃংখলা আইন শৃংখলা বাহিনীর হাতে রাজনৈতিক চাপে মাথানত নয়। এই অভিযানে রাষ্ট্রের প্রধান আছেন দেশের কোটি কোটি শান্তি প্রিয় মানুষের দোয়া আছে। আপনার প্রতি আন্তরিক দোয়া ও সালাম।
Total Reply(0)
কামরুল ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩:১৭ পিএম says : 0
চাকুরীজী এবং ব্যবসায়ী ছাড়া বাংলাদেশে ২৫ লাক মোটর সাইকেল আছে, এই গুলিকে ধরে বাজেয়াপ্ত করুন ৩০% সন্ত্রাস কুমে যাবে.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন