ঢাকা, শনিবার , ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথ

উদ্বোধন করবেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী

নীলফামারী জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

 ৫৪ বছর পর আসছে জুলাই মাসে চিলাহাটি-হলদিবাড়ি ট্রেন চলাচল আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এর উদ্বোধন করবেন। শনিবার চিলাহাটি রেলস্টেশনে ভারতের সাথে রেল সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে চিলাহাটি এবং চিলাহাটি বর্ডারের মধ্যে ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ প্রকল্প উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেন রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন। একই স্থানে রেলপথ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নুর, সংসদ সদস্য আফতাব উদ্দিন সরকার, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রাবেয়া আলীম, ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাস, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব (ভারপ্রাপ্ত) মজিবুর রহমান বক্তব্য দেন।

ভারতীয় হাই কমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাস বলেন, ভারত সরকার বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা, শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিয়ে আসছে। রেলপথ চালু হলে ব্যবসা বাণিজ্যের সম্প্রসারণসহ বন্ধুত্বের সম্পর্ক আরো উন্নত হবে।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় চিলাহাটি-হলদিবাড়ি ট্রেন চালু হচ্ছে। এ পথ দিয়ে সহজেই এ অঞ্চলের মানুষ দার্জিলিং এবং কলকাতা যেতে পারবেন।

তিনি বলেন, ১৯৬৫ সালে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পর এ রেলপথ বন্ধ হয়ে গেলেও আর চালু হয়নি। বাংলাদেশ-ভারত সরকারের এ উদ্যোগে স্বর্ণালি যুগ হিসেবে প্রসারিত হবে। পরে মন্ত্রী চিলাহাটি রেলস্টেশনসহ প্রকল্প এলাকা পরিদর্শণ করেন। এ সময় তিন সংসদ সদস্য ছাড়াও জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, রেলপথ মন্ত্রনালয়ের মহাপরিচালক খন্দকার শহিদুল ইসলাম, ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স ইনফ্রাসট্রাকচার চেয়ারম্যান গোলাম আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, চিলাহাটি রেলস্টেশন থেকে বর্ডার পর্যন্ত পৌনে সাত কিলোমিটার ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণে সরকারের ব্যয় হচ্ছে ৮০ কোটি ১৬ লাখ ৯৪ হাজার টাকা। আগামী বছরের জুলাই’র মধ্যে কাজ সম্পন্ন হওয়ার কথা রয়েছে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন