ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আড়তে পেঁয়াজের পাহাড় : চট্টগ্রামে অভিযান

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১ অক্টোবর, ২০১৯, ৩:১৯ পিএম | আপডেট : ৩:৩৪ পিএম, ১ অক্টোবর, ২০১৯

অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির পর দেশের অন্যতম বড় পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের আড়তে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আড়তগুলোতে পেঁয়াজের রীতিমতো পাহাড়। ঘাটতি না থাকলেও পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে চড়াদামে। তবে অভিযানের মুখে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক রাখার ‘অঙ্গীকার’ করলেন আড়তদাররা।
মঙ্গলবার খাতুনগঞ্জের আড়তে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট কাট্টলী সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) তৌহিদুল ইসলাম।
পেয়াঁজের তিন আড়ত মেসার্স হাজী অছিউদ্দিন সওদাগর, মেসার্স আবদুল আউয়াল ও মেসার্স শাহজালাল ট্রেডার্সে মিয়ানমারসহ বিভিন্ন দেশ থেকে আসা পেঁয়াজ ক্রয়মূল্যের চেয়ে অনেক বেশি দামে বিক্রির প্রমাণ পাওয়া যায়। বেশি দামে বিক্রি করায় তাদের সতর্ক করা হয়। বাগদাদী করপোরেশন ও এসএন ট্রেডার্সে গিয়ে তাদেরও সতর্ক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
অভিযানের শেষ পর্যায়ে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় খাজা ট্রেডার্স নামের আড়তকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে আদালত। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলাম বলেন, মিয়ানমার থেকে কেনা পেঁয়াজ অনেক বেশি দরে আড়তদারদের বিক্রির প্রমাণ আমরা পেয়েছি।
অধিকাংশ আড়তেই একই অবস্থা। প্রথমদিনের অভিযানে সতর্ক করে আড়তদার সমিতির কাছ থেকে আমরা অঙ্গীকার নিয়েছি তারা ক্রয়মূল্যের সাথে পরিবহন ও অন্যান্য খরচ মিলিয়ে স্বাভাবিক দামে পেঁয়াজ বিক্রি করবে।
ভারতের পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের খবরে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে চট্টগ্রামে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যায়। তবে বাজারে পেঁয়াজের ঘাটতি নেই। ইতোমধ্যে তুরস্ক থেকে জাহাজে ১৩টি কন্টেইনারযোগে প্রায় ৪ শ’ মেট্রিক টন পেঁয়াজ চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছে। মিয়ানমার থেকেও এসেছে আরও একটি চালান। আমদানিকৃত এসব পেঁয়াজ দ্রুততার সাথে খালাস করা হচ্ছে। ফলে বাজারে দাম পড়ে যাওয়ার আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
দীনমজুর কহে ১ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:০১ পিএম says : 0
।।ওদের সাস্তি দিন।।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন