বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

খুলনায় স্ত্রী ও মেয়ে হত্যার দায়ে রমজানের মৃত্যুদণ্ডাদেশ

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২ অক্টোবর, ২০১৯, ৫:৩৩ পিএম

স্ত্রী এবং ১৪ বয়সী শিশু পুত্র খুলনার রুপসা ব্রীজের উপর থেকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে হত্যা করার দায়ে স্বামী অন্তর হোসেন রমজানকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫হাজার টাকার অর্থদণ্ড প্রদান করেছে ।

খুলনা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মসিউর রহমান চৌধুরী বুধবার বিকালে আসামীর উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।
সরকারী পক্ষের কৌশলী এড এনামুল হক জানান, ২০১৭ সালের ২৭ জুন রাতে স্ত্রীকে বরিশাল যাবার কথা বলে রুপসা নদীর উপর খান জাহান আলী ব্রীজের উপর নিয়ে আসে। রাত নয়টার দিকে স্ত্রী ও পুত্রকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে হত্যা করে। ঘটনাস্থলে উপস্তিত জনতা এই সময় অন্তর হোসেন রমজানকে ধরে গনপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করে। পরে পুলিশ নদী হতে নিহত স্ত্রী তৈয়েবা খাতুন এবং শিশু পুত্র আব্দুর রহিমের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

নিহত তৈয়েবা খাতুনের মা রশিদা বেগম বাদী হয়ে রুপসা থানায় মামলা দায়ের করে। মামলায় ১৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ১১জন সাক্ষ্য প্রদান শেষে আজ এই রায় প্রদান করেন। এই সময় আদালতে আসামী অন্তর হোসেন রমজান উপস্থিত ছিল।

রায় ঘোষনা কালে জেলা ও দায়রা জজ মসিউর রহমান ব্যাখ্যা করে বলেন, মৃত্যুদন্ড দন্ডিত ব্যক্তির অর্থ দন্ড কেন প্রশ্ন উঠতে পারে। কিন্তু যেহেতু আইনে রয়েছে তাই তিনি মৃত্যুদন্ড এবং অর্থদন্ড প্রদান করেন। রায় পাঠকালে বিচারক উচ্চরন করেন যে ব্যক্তি নিজ স্ত্রী এবং শিশু পুত্রকে হত্যা করতে পারে তাকে মৃত্যুদন্ডই পেতে হবে। রায় ঘোষনার পর বিচারক আসামীর কাছে জানতে চ্না তিনি উচ্চ আদালতে আপীল করবেন কি না ? আসামী আপীল করার জন্য হ্যাঁ সুচক জবাব দিলে বিচারক রায়ের কপি পাবার পর আগামী সাত কার্য দিবসের অপীল করার জন্য সময় বেধে দেন।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন