ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

অভিশাপ দিয়েছেন ফারুকী!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৭:৩৯ পিএম

‘বুয়েটের নিউজটা মাত্র দেখলাম। দেখে গলাটা শুকিয়ে গেলো। এই সমাজইতো আমরা সবাই মিলে বানাচ্ছি, নাকি? যেখানে আমার মতের বিরোধী হলে তাকে নির্মূল করা আমার পবিত্র দায়িত্ব। আমাদের সামাজিক-রাজনৈতিক-ধর্মীয় নেতারা সবাই মিলে তো এতো বছর এই কাজই করছি, এই ভাবেই একটা প্রজন্ম বানাইছি! আর আমাদের এই নির্মূলবাদী মন বানানো হইছে বাংলার বুদ্ধিজীবীদের ওয়ার্কশপে! তাই আমি তোমাদের অভিশাপ দেই!’- বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে (২১) পিটিয়ে হত্যা করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতা। এ হত্যার প্রতিবাদে এভাবেই ফুঁসে উঠেছেন দেশের জনপ্রিয় নাট্য নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই নির্মাতা আরও লিখেছেন, ‘আমি অভিশাপ দেই কারণ তুমি এই ঘৃণা আর নির্মূল তত্ত্বকে মহৎ বানিয়ে প্রচার করেছো দেশের নামে, জাতীয়তার নামে, ধর্মের নামে, লিঙ্গের নামে, আমার নামে, তোমার নামে!’
ফারুকী আরও লিখেছেন, ‘আমি অভিশাপ দেই তাদের যারা আমাদের সমাজটাকে এই জায়গায় এনে দাঁড় করালো যেখানে অপ্রিয় কথা বলার জন্য সহপাঠীকে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়! আমি অভিশাপ দেই! অভিশাপ দেই! অভিশাপ দেই! কারণ আমার কিচ্ছু করার ক্ষমতা নাই, কেবল অভিশাপ দেয়া ছাড়া!’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
Nannu chowhan ৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:০৪ পিএম says : 0
Dekhenna,apni shotto bolesen tai apnar biruddhe ratre matal hoye nachwala buddijibira apnake talk show te wash korbe ar apnar biruddhe mamla hobe.Eai holo aj amader obsta,dhonnobad apnake
Total Reply(0)
Atiq ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১:২৮ পিএম says : 0
Abrar jodi shibir hoto, tahole ki ta boidha hoto ? Ei protibad hoto ? Rogta ekhanei, gorai khujun, kothai asen.
Total Reply(0)
Abdullah ৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১১:৩৪ পিএম says : 0
অবস্থাদৃষ্টে প্রতিয়মান হয় যে জামাত-শিবির মানেই "সিডিউল কাষ্ট" অন্ততঃ গত কয় বছরে এভাবেই নিগৃহিত করেছে আওয়ামী সরকার। RAB-পুলিশ দিয়ে নির্বিচারে হত্যা-নির্যাতন করায় এই ছাত্র সংগঠনগুলিও তাদের প্রতিও বেপরোয়া হ'য়ে উঠেছে। কিন্তু কোন বিপর্যয়ে দিকে চলে যাচ্ছে দেশ সে খবর নাই। এই মুসলিম দেশে কতখানি দুঃসাহস দিলে হিন্দু হয়ে একটি ধর্মপ্রাণ মুসলিম ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করতে পারে । এখন প্রশ্ন করা যায় RAB-পুলিশের নলে এখন ক্রস ফায়ার নেই কেন ? এ ষড়যন্ত্রের শিকড় বহুদুর সঠিক তদন্ত করুন।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন