ঢাকা, শুক্রবার , ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মুসলিম রাজপুত্রদের শাসন ও ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ মেওয়ায় বিজেপির নতুন কৌশল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

আগামী ২১ অক্টোবর ভারতের হরিয়ানায় শুরু হচ্ছে বিধানসভা নির্বাচন। গত বিধানসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি এই রাজ্যে ঘাঁটি গাড়তে পারেনি। এবার বিধানসভা নির্বাচনকে ঘিরে মোদি-শাহ জুটি যে কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়েছে তা বলাবাহুল্য। হরিয়ানা রাজ্যের নব্বইটি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে বিধানসভা নির্বাচন। আর এই নির্বাচনকে পাখির চোখ করে জোর কদমে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে বিজেপি। জানা গেছে, ২০১৪ সালের বিধানসভা নির্বাচনে এই রাজ্যে মোদি সফল না হতে পারলেও আসন্ন নির্বাচনে পালা-বদলের ইঙ্গিত দিয়েছেন মোদি নিজেই। সরকারি স‚ত্রে জানা গেছে, হরিয়ানার মুসলিম অধ্যুষিত এলাকা মেওয়ায় এবার আশি শতাংশ মুসলিম ভোট ব্যাংক টানতে ওই এলাকার বাসিন্দা বিলেত ফেরত বছর সাতাশের এক তরুণীকে প্রার্থী করছে বিজেপি। হরিয়ানার মেওয়া হল মুসলিম অধ্যুষিত অনুন্নত একটি অঞ্চল। এক সময় মেওয়ার অঞ্চলের অলিতে গলিতে লুকিয়ে ছিল ইতিহাস। প্রাচীন ঐতিহাসিক কাহিনী নিয়ে সকলের কাছে বেশ জনপ্রিয় হরিয়ানার এই মেওয়া অঞ্চল। জানা আরও গেছে, এককালে মুসলিম রাজপুত্রদের সুদীর্ঘ শাসন ও ঐতিহ্যে ভরপুর ছিল আজকের এই মেওয়া। বর্তমানে মেওয়াতে না আছে রাজা না আছে তার সভাসদ। কালের নিয়মে সবই স্মৃতির পাতায়। আর অতীতের মেওয়ার সঙ্গে আজকের মেওয়ার আকাশ-পাতাল পার্থ্যকে পৌঁছে গেছে। সরকারি স‚ত্রে জানা গেছে, বর্তমানে মেওয়ার বাসিন্দারা কুসংস্কার, অশিক্ষা এবং অপুষ্টিতে জরাগ্রস্ত। এমনকি নেই আগের সেই ঐতিহ্য জৌলুস। কালের নিয়মে সবই হারিয়ে গেছে মেওয়া সেখান থেকে। আর হরিয়ানার এই মেওয়া অঞ্চলে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে বিজেপি। মেওয়ার অনুন্নত এলাকাকে এক হাত করে এবার কংগ্রেস প্রার্থী মোহাম্মদ ইলিয়াসের বিরুদ্ধে ভোটের ময়দানে লড়বেন নওকশাম চৌধুরী। স‚ত্রের খবর, গত ২০০৯ সালের বিধান সভা নির্বাচনে এই কেন্দ্র থেকে বিপুল ভোটে জয়ী হন মোহাম্মদ ইলিয়াস। সেই সময়ও বিজেপি এই কেন্দ্রে পদ্মফুল ফোটাতে পারেনি। এদিকে, কংগ্রেস প্রার্থী মোহাম্মদ ইলিয়াস জানিয়েছেন, মেওয়া কেন্দ্র থেকে নওকশাম তার বিরোধী প্রার্থী হওয়ায় এই বিষয়ে মোটেও মাথা ঘামাতে রাজি নন তিনি। বর্তমানে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে মেওয়া এলাকার মানুষের জন্য শিক্ষা ব্যবস্থার মান উন্নয়নসহ এই এলাকার পিছিয়ে পড়া মানুষের উন্নতিকে পাখির চোখ করে ভোটে লড়তে চান তিনি। বিজেপির হয়ে ওই এলাকায় দাঁড়ানো প্রার্থী নওকশাম চৌধুরী হল একজন বিলেত ফেরত উচ্চ শিক্ষিত নারী। ইতিহাসে স্নাতক নওকশাম দিল্লির বিখ্যাত মিরান্ডা হাউস কলেজের একজন কৃতি ছাত্রী। ইতিহাসে স্নাতক শেষ করে ‘লাক্সারি ব্র্যান্ড ম্যানেজমেন্ট’এর উপর মাস্টার্স করতে চলে যান ইতালিতে। এরপর সেখান থেকে পাবলিক কমিউনিকেশন পড়া শেষে পাড়ি জমান বিলেতে। শুধু তাই নয় ঝকঝকে ক্যারিয়ার এবং বিদেশের মোটা বেতনের চাকরি ছেঁড়ে দিয়ে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে দেশে ফিরে আসেন নওকশাম। আর দেশে ফিরে একেবারে সোজা রাজনীতিতে প্রবেশ তার। এনডিটিভি, পিটিআই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
বিদ্যুৎ মিয়া ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ২:১৯ এএম says : 0
মুসলীম নির্যাতনের সময় এসব মনে থাকে না
Total Reply(0)
দাউদ ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ২:১৯ এএম says : 0
বিজেপিকে কোনভাবে বিশ্বাস করা উচিত নয়
Total Reply(0)
Shafiqul Islam ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:৪১ এএম says : 0
নওকশাম-কে বি.জে.পি মুসলিমদের ভোট নিজেদের পক্ষে নেওয়ার জন্য নমিনেশন দিয়েছে। নওকশাম নির্বাচনে জয়ী হোক বা পরাজিত হোক সেটা বড় কথা নয়- নির্বাচনের পরই বি.জে.পি পুনরায় মুসলিম নিধনে নেমে পড়বে। বি.জে.পি-কে বিশ্বাস করা আর অন্ধকারে বিষাক্ত সাপের গর্তে হাত দেওয়ার মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। অতিত অভিজ্ঞতা তা-ই প্রমান দিচ্ছে।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন