ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশ উন্নতি হচ্ছে তাতে খুশি হওয়ার কিছু নেই: পরিকল্পনামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:৫৭ পিএম

‘গ্রামে যেসব খালবিল আছে সেগুলো থেকে দরিদ্র মানুষেরা ছোট মাছ ধরে খেত। সেটাকে পর্যন্ত আমরা রাষ্ট্রীয় সম্পদ হিসেবে বিবেচনা করে ইজারা দিয়ে দিচ্ছি। সরকার এসব খালবিলের ইজারা থেকে খুব বেশি টাকা পায় না। মাঝখান থেকে গ্রামের দরিদ্র লোকেরা এসব খালবিল থেকে আর মাছ ধরে খেতে পারে না।’- বুধবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিবিএস অডিটোরিয়ামে আন্তর্জাতিক সূচক বিষয়ে জাতীয় কর্মশালায় পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এসব কথা বলেন।

এম এ মান্নান বলেছেন, প্রচুর অন্যায় গেড়ে বসে আছে এ দেশে। এসব সমস্যা নতুন নয়, সমস্যা পুরাতন। এ জন্য আমাদের ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সামনের দিনে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করাই হলো বড় চ্যালেঞ্জ।

তিনি আরও বলেন, সার্বিকভাবে আমরা এখন ভালো পর্যায়ে আছি। অনেকটা ফুরফুরে হাওয়া বইছে বাংলাদেশ। দেশের উন্নতি হচ্ছে তাতে খুশি হওয়ার কিছু নেই। আমাদের সাবধান থাকতে হবে। কারণ উদীয়মান দশটি দেশের মধ্যে আর্জেন্টিনা ছিল একটি। বর্তমানে সেখানে প্রতি তিনজনে একজন গরিব। স্যানিটেশন-সহ তাদের নানা সমস্যা রয়ে গেছে।

পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, দেশের অনেক অর্জনের সঠিক ও হালনাগাদ তথ্য উপাত্ত তুলে না ধরার কারণে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান যথাযথভাবে প্রতিফলিত হয় না। এ বিষয়টির দিকে অতীতে আমরা সুনির্দিষ্টভাবে নজর দিতে পারিনি। এখন সময় এসেছে দেশকে ব্র্যান্ডিং করতে হবে। এসডিজিসহ সব আন্তর্জাতিক সূচকে বাংলাদেশের অবস্থানকে যথাযথভাবে তুলে ধরতে সঠিক মানসম্পন্ন এবং হালনাগাদ উপাত্ত সরবরাহ করতে হবে।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান বলেন, আন্তর্জাতিক সূচক একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যা একটি দেশের সামগ্রিক অগ্রগতি আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে তুলে ধরতে পারে। তাই আন্তর্জাতিক সূচকে অনন্য অবস্থান নিশ্চিত করার মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশকে উন্নত দেশ হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই।

পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন- এসডিজির মুখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. শামসুল আলম, ইউএনডিপি বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জি প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Azad Ahamed ১৬ অক্টোবর, ২০১৯, ৯:০৪ পিএম says : 0
Your secretary running around the world with family 11 times in 19th month this is the progress of your ministry.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন