ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঝালকাঠিতে অভিযানের সময় পালাতে গিয়ে মাছ ক্রেতার মৃত্যু

৯ জেলের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড

ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ অক্টোবর, ২০১৯, ২:২৩ পিএম

ঝালকাঠিতে অভিযানের সময় ইলিশ মাছ কিনে পালাতে গিয়ে নালায় পড়ে বাবুল হাওলাদার (৫০) নামে এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাতে রাজাপুর উপজেলার বিষখালী নদী তীরের পশ্চিম বড়াইয়া গ্রামের কলাকোপা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে আজ শনিবার সকাল থেকে সুগন্ধা ও বিষখালী নদী থেকে ৯ জেলেকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদ- দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় ৭০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ১০০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার রাতে বিষখালী নদীর তীরে জেলেরা ইলিশ মাছ বিক্রি করছে খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ অভিযান চালায়। এসময় ইলিশ মাছ কিনে বাড়ি ফেরার পথে অভিযান টের পেয়ে পালাতে গিয়ে নালায় পড়ে বাবুল হাওলাদার নামে এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়। বাবুল হাওলাদার চর উত্তমপুর গ্রামের মৃত ইউসুফ আলী হাওলাদারের ছেলে। তিনি দীর্ঘ দিন সৌদি আরবে ছিলেন।
স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার রাতে বিষখালী নদী পথকে অবৈধভাবে ধরা দুই ব্যাগ ইলিশ মাছ জেলেদের কাছ থেকে কিনে বাড়ি ফিরছিলেন বাবুল। নদী থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার দূরে কলাকোপা এলাকায় স্থানীয় অতি উৎসাহী কিছু যুবক রাত পৌনে ১০টার দিকে মাছ নিয়ে যেতে বাবুলকে বাধা দেয়। এ সময় বাবুল ভয় পেয়ে মাছের ব্যাগ ফেলে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এই সুযোগে মাছ নিয়ে পালায় বাধা দেওয়া যুবকেরা। অন্ধাকারের মধ্যে বাবুল পালাতে গিয়ে একটি নালায় পড়ে যায়। এ সময় কারো সাহায্য না পেয়ে ঘটনাস্থলেই বাবুলের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয় বাসিন্দারা বাবুলকে মৃত অবস্থায় খুঁজে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ রাত পৌনে ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে বাবুলের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
ঝালকাঠির সহকারী পুলিশ সুপার (রাজাপুর-কাঠালিয়া) সার্কেল মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, রাতেই লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হবে।
এদিকে শনিবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে অভিযান চালিয়ে ১১ জেলেকে আটক করে। পরে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাজাপুরের ইউএনও সোহাগ হাওলাদার ও এনডিসি মো. বশির গাজী আটককৃতদের মধ্যে ৯ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করেন। জব্দ করা মাছ ধরার ৯টি নৌকা। এসময় নদী থেকে ৭০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ১০০ কেজি ইলিশ উদ্ধার করা হয়। জালগুলো জনসম্মুখে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। মাছগুলো এতিমখানায় বিতরণ করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন