ঢাকা, শুক্রবার , ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

এই প্রথম দেরি করায় যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ দিল ভারতের রেল!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:০৬ পিএম

ট্রেন দেরি করা, ট্রেনের সময়সূচি নিয়ে ভোগান্তি আমাদের কাছে নতুন কিছু না। আমাদের মতোই প্রায় একই অবস্থা ছিল ভারতের রেলওয়ের। তবে এবার ইতিহাসে এক অবিস্মরণীয় অধ্যায়ের জন্ম দিল তারা। এবার ট্রেন দেরি করার কারণে ভুক্তভোগী যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ দিয়ে নজির গড়ল ভারতের তেজাস এক্সপ্রেস!

ট্রেন প্রায় দুই ঘণ্টা দেরি করায় সদ্য চালু হওয়া তেজাস এক্সপ্রেসে গতকাল শনিবার ভ্রমণকারী যাত্রীদের প্রত্যেককে ২৫০ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। তেজাস হচ্ছে ভারতীয় রেলের প্রথম বেসরকারি ট্রেন যা ভারতীয় রেলওয়ে ক্যাটারিং অ্যান্ড ট্যুরিজম কর্পোরেশন (আইআরসিটিসি) দ্বারা পরিচালিত। ৪ অক্টোবর লখনৌ থেকে চালু হয় এই ট্রেনটি। লখনৌ থেকে প্রায় ৪৫১ জন এবং নয়াদিল্লি থেকে প্রায় ৫০০ জন যাত্রী ওই ট্রেনে উঠেন। লখনৌয়ের আইআরসিটিসি’র চিফ রিজিওনাল ম্যানেজার (সিআরএম) অশ্বিনী শ্রীবাস্তব বলেন, ‘আমরা সমস্ত যাত্রীদের মোবাইল ফোনে একটি লিঙ্ক পাঠিয়েছি যাতে তারা ক্ষতিপূরণ দাবি করতে পারেন। যারা আবেদন করবেন তারা টাকা ফেরত পাবেন।’

ট্রেন দেরি করলে যাত্রীরা ক্ষতিপূরণ পাচ্ছেন ভারতের ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম! ক্ষতিপূরণ তখনই দেওয়া হয় যখন ট্রেন নির্দিষ্ট সময়সূচির পরে গন্তব্যস্থলে পৌঁছবে। যদি ট্রেন দেরিতে যাত্রা শুরু করেও নির্দিষ্ট সময়ে স্টেশন যাত্রীদের পৌঁছে দিতে পারে তবে আর ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে না।

শনিবার তেজস এক্সপ্রেস স্থানীয় সময় ভোর ৬ টা ১০ মিনিটে লখনৌ থেকে ছাড়ার কথা থাকলেও তা সকাল ৮ টা ৫৫ মিনিটে যাত্রা শুরু করে। এবং বেলা ১২ টা ২৫ মিনিটের পরিবর্তে ৩ টা ৪০ মিনিটে নয়াদিল্লিতে পৌঁছায়। নয়াদিল্লি থেকে ফের বেলা ৩ টা ৩৫ মিনিটের পরিবর্তে তা ৫ টা ৩০ মিনিটে রওনা হয়। ইয়ার্ডে থাকার সময়ই ট্রেনের একটি কোচ লাইনচ্যুত হয়ে পড়ায় এই বিলম্ব হয়। দেরি করায় যাত্রীদের বিরক্তি বা ক্ষোভ পুষিয়ে দিতে অতিরিক্ত চা ও দুপুরের খাবার পরিবেশন করা হয়েছিল। যাত্রীদেরকে দেয়া রিফ্রেশমেন্ট প্যাকেটে বড় বড় করে লেখা হয়েছিল ‘বিলম্বের জন্য দুঃখিত’। ট্রেন দেরিতে ছাড়বে বলে যাত্রীদের উদ্দেশে বারেবারে ঘোষণাও করা হয়। সূত্র: এনডিটিভি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
আব্দুল্লাহ ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:৪২ পিএম says : 0
দৈনিক ইনকিলাব এর সম্পাদকের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি,এই ধরণের অশ্লীল ছবি দেওয়া হয় কেন?যা ইসলাম সমর্থন করেনা।আশা করি যথাযথ ব্যবস্থাগ্রহণ করবেন ।
Total Reply(0)
আব্দুল্লাহ ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৮:৪৭ পিএম says : 0
দৈনিক ইনকিলাব এর সম্পাদকের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি এই ধরণের অশ্লীল ছবি দেওয়া হয় কেন?যা ইসলাম সমর্থন করেনা।আশা করি যথাযথ ব্যবস্থাগ্রহণ করবেন ।
Total Reply(0)
সুলতান মাহমুদ সিরাজী ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ১০:২২ পিএম says : 0
উপরের মন্তব্যের সাথে একমত
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন