ঢাকা, সোমবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

মহানগর

অনিয়ন্ত্রিত অভিবাসনের কারণে বেকারত্ব বাড়ছে -ড. আইনুন নিশাত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০১৯, ৬:৪১ পিএম

ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর এমিরেটাস ড. আইনুন নিশাত বলেছেন, অনিয়ন্ত্রিত অভিবাসনের কারণেই মুলত দেশে বস্তির সংখ্যা বাড়ছে। অনেক এলাকায় কেন্দ্রীয় জনগণের সাথে তাদের সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটছে। এমনকি তাদের জন্য এলাকাসমূহের মূল ঐতিহ্য বদলে যাচ্ছে, বাড়ছে বেকারত্ব। এর ফলে এলাকার স্থানীয় জনগণ নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন। নিরাপত্তা নিশ্চিতের ক্ষেত্রে পানি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থানের পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরীতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

জলবায়ু পরিবর্তনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে চতুর্থবারের মতো জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে ব্র্যাকের আলোচনা পর্বে তিনি একথা বলেন। মঙ্গলবার (২২শে অক্টোবর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইএবি মিলনায়তনে এই সম্মেলন শুরু হয়, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

ব্র্যাক আয়োজিত আলোচনা পর্বের বিষয় ‘বাংলাদেশে অভিবাসীবান্ধব সহনশীল নগর তৈরিতে পাবলিক- প্রাইভেট- কমিউনিটি পার্টনারশিপ (পিপিসিপি)।’

অভিবাসিদের নিজেদের পরিমন্ডলে স্বাচ্ছ্যন্দে বসবাসের নিশ্চয়তা প্রদানের ক্ষেত্রে নিম্নতম গুণগত মান নিশ্চিত করতে আরো বেশি গুরুত্ব দেয়ার আহবান জানান পরিবেশ অধিদপ্তরের জলবায়ু পরিবর্তন ও আন্তর্জাতিক সম্মেলনের ডিরেক্টর মির্জা শওকত আলী। তিনি বলেন, ‘সরকারি পর্যায়ে পলিসি প্রণয়নের ক্ষেত্রে কমিউনিটির অংশগ্রহন নিশ্চিত করা উচিত।’

এ সময় ব্র্যাকের নগর উন্নয়ন কর্মসূচি ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক পরিচালক ড. মো. লিয়াকত আলী জানান, আলট্রা পুওর এর একটি মডেল নগরের ক্ষেত্রে প্রয়োগের পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

নগর উন্নয়ন কর্মসূচির প্রধান হাসিনা মুশরফা বলেন, জলবায়ু সহনশীল নগর গঠনে বেসরকারি সংস্থ্সামূহ (এনজিও) এর পাশাপাশি পাবলিক সংস্থাসমূহের (বিভিন্ন সরকারি সংস্থা এবং সিটি কর্পোরেসন) সমান দায়িত্ব রয়েছে। নগরসমূহকে জলবায়ু সহনশীল হিসেবে গঠনে প্রণীত সকল প্রজেক্ট এবং মডেলসমূহকে কমিউনিটির সহযোগীতায়, স্পেসিয়ালি কমিউনিটি ড্রাইভেন এপ্রোচের মাধ্যমে গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি।

আলোচনায় আরও অংশ নেন সাতক্ষীরার পৌর মেয়রসহ জলবায়ু ও স্থানীয় প্রশাসনে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও বিশেষজ্ঞরা। আলোচনায় মূলত নগর পরিকল্পনা, অর্থায়ন এবং ব্যবস্থাপনায় জলবায়ু-অভিবাসী বিষয়টি অন্তর্ভুক্তিকরণের ক্ষেত্রে নতুন ধারণা এবং সম্ভাবনার বিষয় অগ্রাধিকার পায়। পাশাপাশি পাবলিক- প্রাইভেট- কমিউনিটি পার্টনারশিপ মডেলের মাধ্যমে অভিবাসীবান্ধব সহনশীল নগর গঠনে ব্র্যাকের অভিজ্ঞতা তুলে ধরা হয়।

আয়োজকেরা জানান, বিশেষজ্ঞদের আলোচনায় প্রাপ্ত নতুন চিন্তাধারা এবং প্রতিক্রিয়া বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার নতুন পরিকল্পনা প্রণয়নেও সহায়ক হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন