সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ক্যারিয়ার

সঠিক ক্যারিয়ার গড়তে

প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

আমরা ছোট থেকে অনেক স্বপ্ন নিয়ে বড় হই। যখন বড় হই, তখন আগের স্বপ্নগুলো আর থাকে না। নতুন নতুন স্বপ্ন এসে ভর করে। কখনো মনে হয় ব্যাংকার হই, কখনো ফিল্ম নিয়ে কাজ করবো, কখনো ফটোগ্রাফার হবো, আবার বাবা-মাও চায় ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত হতে। একদিকে নিজের স্বপ্ন অন্যদিকে বাবা-মার স্বপ্নÑ কি যে করি। বুঝে উঠতে পারছি না ক্যারিয়ারটা কোনদিকে যাবে। এমন সমস্যা আমাদের প্রত্যেকের জীবনে আসে। তবে এখন এ সমস্যার সময় শেষ হয়েছে। নিজেকেই এ সমস্যা থেকে বের হয়ে আসতে হবে এবং সমাধান করতে হবে সমস্যাগুলোকে।

আগে সমস্যাগুলো কি কি তা বের করতে হবে। অনেকগুলো ক্যারিয়ার নিয়ে কনফিউজড হয়ে পরে। যেমন ব্যাংকার হতে চান আবার সরকারি চাকরিজীবী হতে চান এ নিয়ে কনফিউজড। আবার যোগ্যতা একটু কম বলে পছন্দের ক্যারিয়ারটার কাছে যেতে পারবেন না এমন চিন্তা হতে পারে। তাই বলে বসে থাকলে চলবে না। স্বপ্নের ক্যারিয়ারটি পেতে হলে চেষ্টা করতে হবে নিজ থেকেই। এখন অনেক ধরনের ক্যারিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। খোঁজ করুন কোন ধরনের ক্যারিয়ারের জন্য আপনি ফিট। কারণ প্রত্যেকটি ক্যারিয়ারে জন্য আপনি ফিট হবেন এমন না ভাবাই ভালো। তবে মনে রাখবেন আপনি কোন না কোন কাজের যোগ্য। তাই নিজে যে দিকে এগিয়ে গিয়েছেন সেদিকেই ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা করা ভালো। আবার অনেক সময় দেখা যায়, আমরা যে চাকরি করছি আর আমরা যে বিষয়ে পড়াশোনা করেছি এই দুয়ের মধ্যে কোন মিল নেই। যে বিষয়ে পড়াশোনা করা হয়েছে সে বিষয়ে চাকরি পাবে এমন চিন্তা করা যেন বর্তমানের সাথে মিলে না। এই জন্য গ্র্যাজুয়েশন করার আগে ক্যারিয়ারের লক্ষ্যটা ঠিক করে যাওয়া ভালো তা না হলে সময়, অর্থ এবং মনোবল নষ্ট হবে। এই জন্য কোন দিকে ক্যারিয়ার গড়তে চান তা আগে ঠিক করে সেদিকে এগিয়ে যেতে হবে।
সঠিকভাবে ক্যারিয়ার গড়তে হলে প্রথমে নিজের আত্মবিশ্বাস তৈরি করতে হবে। অনেকেই নিজের পছন্দের পথে চলতে ভয় পেয়ে যাই। যদি সফল না হতে পারি, পরিবারে সবাই অর্থাৎ বাবা-মা শুনে যদি রাগ করে। এসব উল্টাপল্টা ভাবনা আমাদের মধ্যে এসে ভিড় করে। আমরা কখনো ভাবি না অন্যরা যে পথে চলে সে পথে তো আমরাও হেরে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাহলে কি খারাপ লাগবে না। এজন্য আগে থেকে নিজের প্রত্যেকটি কাজের প্রতি থাকতে হবে বিশ্বাস। আর এই বিশ্বাস থেকেই তৈরি হবে নিজের সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা। যত সমস্যাই আসুক না কেন তা সঠিক সময়ে সঠিকভাবে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা তৈরি হবে। আর তখন দেখবে ঠিকই আপনি জয়ী হয়েছেন।
আপনি কি পছন্দ করেন। তা আগে ঠিক করতে হবে। অন্যের কথায় না শুনে নিজেকে নিয়ে ভাবুন। আপনি কী চান, কোন দিকে গেলে আপনার কাজ হবে। সেটি জানার চেষ্টা করুন। এরপর সেই পথে নিজেকে প্রয়োগ করুন। আপনার রেজাল্ট ভালো না বলে পছন্দের ক্যারিয়ারে কথা ভাবেন না এমন নয়। অন্যদিকে চেষ্টা করুন। ওই ক্যারিয়ারের চেয়ে ভালো কি আছে যা আপনার রেজাল্টকে উত্তীর্ণ করতে পারে। ক্যারিয়ার মানে কি? তা আগে বুঝতে হবে। আপনার কাছে ভালো ক্যারিয়ার মানে অনেক টাকা, নাম, যশ প্রভৃতি কিন্তু ভালো ক্যারিয়ার মানে নিজের আত্মতৃপ্তি এবং ক্রিয়েটিভ কিছু কাজ করে নিজেকে খুশি রাখা। এজন্য আপনার কাছে ভালো ক্যারিয়ার কোনটা নিজে থেকে ঠিক কনে নিন। যেভাবে কাজ করতে চান ঠিক সেভাবে নিজেকে তৈরি করুন।

স তামান্না তানভী

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন