ঢাকা, সোমবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইরানে শিশুদের মৃত্যুদন্ড বিষয়ে জাতিসংঘের উদ্বেগ : ফাঁসির অপেক্ষায় আরো ৯০ শিশু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০১৯, ২:১৯ পিএম

গত বছরের শুরু থেকে অন্তত ১২ জন শিশু অপরাধীকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে ইরানের আদালত। সেই সঙ্গে কমপক্ষে ৯০ জন শিশু মৃত্যুর প্রহর গুণছে, পরিণত বয়স হলেই তাদের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হবে। দেশটির আদালত গত বছর অন্তত ২৫৩ জনের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করেছে। ২০১৩ সাল থেকে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে মোট ২১ জন শিশুকে। ইরানে নিযুক্ত জাতিসংঘের মানবাধিকার সম্পর্কিত বিশেষ তদন্তকারী কর্মকর্তা জাভেদ রহমান এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছেন।
যদিও ১৮ বছর বয়সের নিচের কারও মৃত্যুদন্ড কার্যকরে আন্ডর্জাতিক আইনে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে, তবুও শিশুদের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করে যাচ্ছে ইসলামী প্রজাতন্ত্রটি। তবে ইরান বলছে, আইন মেনেই তাদের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে।
জাতিসংঘের এক স্বাধীন মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ বুধবার এমন তথ্য দিয়েছেন। ফাঁসি কার্যকরে এগিয়ে থাকা দেশগুলোর মধ্যে ইরান গত বছর ২৫৩ জনকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে।
ইরানে মানবাধিকার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ তদন্ডকারী জাভাইদ রেহমানের নতুন এক মূল্যায়নে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে ফাঁসিতে হত্যা করা সাতটিই ছিল শিশু। এভাবে ফাঁসিতে মৃত্যুদন্ড আন্ডর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন হলেও দেশটির আইনে তা সমর্থন করে যাচ্ছে।
সাবালকত্বে পৌঁছানোর পরেই যে কারও ওপর মৃত্যুদন্ডের শাস্তি প্রয়োগ করা যাবে বলে ইরানের আইনে বলা আছে। এমনকি ১৫ বছর বয়সী কোনো বালক কিংবা ৯ বছর বয়সী মেয়েদের ক্ষেত্রেও এই আইন প্রযোজ্য।
ইরানের বিচার ব্যবস্থা মূলত কিসাস প্রধার অধীন। এতে শিশুরাও তাদের অপরাধের জন্য মৃত্যুদন্ডের শাস্তি পেতে পারে। এভাবে জয়নাভ সেখানভান্দ নামের এক নারীকে স্বামী হত্যার দায়ে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে। শাস্তি কার্যকরের সময় তার বয়স ছিল মাত্র ১৭। তবে তিনি গৃহনির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।
মৃত্যুদন্ড নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে মানবাধিকার কর্মী জাভাইদ রেহমান বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে বেশি মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা দেশগুলোর মধ্যে ইরান একটি। যদিও এই সংখ্যা গত কয়েক বছরে অনেকটা কমেছে।
সূত্র: দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট ডট ইউকে

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
মোঃ তোফায়েল হোসেন ২৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:৫৩ পিএম says : 0
প্রকাশ্যে গুলি করে মারছে হাজার হাজার মুসলিম, জাতিসংঘ কি করতে পারছে? প্রশ্নের জবাব দিন?
Total Reply(0)
শফিক রহমান ২৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:৫৪ পিএম says : 0
জীবন দেয়া ও নেয়ার মালিক একমাত্র সর্বশক্তিমান আল্লাহ । সুতরাং পৃথিবীর সব দেশে মৃত্যূদন্ড প্রথা বন্ধ হোক
Total Reply(0)
মোঃ তোফায়েল হোসেন ২৫ অক্টোবর, ২০১৯, ৪:৫৫ পিএম says : 0
এটা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়, এতে নাক না গলানোয় ভালো।
Total Reply(0)
জসিম আহমদ ১৭ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:০৬ পিএম says : 0
ইসরাইল যেখানে প্রকাশ্যে গুলি করে মারছে হাজার হাজার মুসলিম,সেখানে জাতিসংঘ কি করতে পারছে? ইরান তাদের দেশের অপরাধী দের সাজা দিচ্ছে এটা জাতিসংঘ খুব ভালো করে দেখছে.! জাতিসংঘ প্রশ্নের জবাব দিন?
Total Reply(0)
জসিম আহমদ ১৭ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:০৬ পিএম says : 0
ইসরাইল যেখানে প্রকাশ্যে গুলি করে মারছে হাজার হাজার মুসলিম,সেখানে জাতিসংঘ কি করতে পারছে? ইরান তাদের দেশের অপরাধী দের সাজা দিচ্ছে এটা জাতিসংঘ খুব ভালো করে দেখছে.! জাতিসংঘ প্রশ্নের জবাব দিন?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন