ঢাকা, সোমবার , ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১ পৌষ ১৪২৬, ১৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বন্ধুকে কাজে পাঠিয়ে তার স্ত্রীকে নিয়ে গেল কলাবাগানে

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০৫ পিএম

চুয়াডাঙ্গায় স্বামীর অনুপস্থিতিতে স্ত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর দুই বন্ধুর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে সদর উপজেলার যদুপুর গ্রামে। বর্তমানে ওই গৃহবধূকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে থানায় মামলা হওয়ার পর অভিযুক্ত ওয়াশিম আলী (৩০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত ওয়াশিম আলী একই গ্রামের মৃত জাফর মণ্ডলের ছেলে।


পুলিশ জানায়, গত বুধবার (৩০ অক্টোবর) রাতে গৃহবধূর স্বামী ব্যবসায়ীক কাজে বাড়ির বাইরে ছিল। এ সুযোগে স্বামীর দুই বন্ধু একই গ্রামের মিলন ও ওয়াশিম ওই গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী একটি কলাবাগানে। সেখানে তাকে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ করে তারা। এক পর্যায়ে গৃহবধূ অচেতন হয়ে পড়লে তাকে রেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা বিষয়টি টের পেয়ে গৃহবধূকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

নির্যাতিতা স্বামীর অভিযোগ, মিলন ও ওয়াশিমের সঙ্গে তার ভালো সখ্যতা ছিল। সে সূত্রে অভিযুক্তরা পরিকল্পনা করে তাকে কৃষিপণ্য বিক্রির জন্য যশোরে যেতে বাধ্য করে। রাতে ফিরে আসতে না পারায় সে সুযোগে তার স্ত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে তারা। বাড়ি ফিরলে বিষয়টি খুলে বলে তার স্ত্রী।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) লুৎফুল কবীর জানান, এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে দুইজনের নাম উল্লেখ করে শুক্রবার রাতে থানায় একটি গণধর্ষণ মামলা করেন। রাতেই এজাহারনামীয় আসামি ওয়াশিমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অন্য আসামীকেও গ্রেপ্তার করতে অভিযান চলছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
আবু আব্দুল্লাহ ২ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:৩৭ পিএম says : 0
আমার প্রশ্ন হল ঘর থেকে তো উনারা জোর করে নিয়ে যায়নি ? এমন জোর জবরদস্তি করলে তো পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা তাকে আগেই সাহায্য করতে পারতো ?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন