ঢাকা, শনিবার , ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

শয্যাসঙ্গী হতে বাধ্য করা হচ্ছে উইঘুর নারীদের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

চীনে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে উইঘুর মুসলিম সম্প্রদায়ের বিবাহিত নারীদের শয্যাসঙ্গী করতে বাধ্য করা হচ্ছে। উইঘুর পুরুষরা চীনের আটক কেন্দ্রে বন্দি। এজন্য তাদের স্ত্রীদের বাসায় তদারকির জন্য যায় সরকারি কর্তারা। কখনও কখনও সরকারি কর্মকর্তাদের বাসায়ও ওই স্ত্রীদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। উভয় সময়ই তাদের সঙ্গে বিবাহিত মুসলিম নারীদের একই বিছানায় থাকতে বাধ্য করা হয়। বুধবার দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের এক প্রতিবেদনে চীনের উইঘুর মুসলিমদের ওপর যৌন নির্যাতনের এ চিত্র উঠে এসেছে। প্রায় ১০ লাখ উইঘুর মুসলিমকে বন্দি করে রাখার অভিযোগ রয়েছে চীনের বিরুদ্ধে। বন্দিদের ওপর নিপীড়ন ও নির্যাতনের কারণে তীব্র সমালোচনার মুখে দেশটি। এর আগে নারীদের গর্ভপাত ঘটাতে বাধ্য করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ। এ সময় কেউ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। তারা এর চেয়েও আরও ভয়ংকর, বর্বর-পাশবিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন প্রতিনিয়ত। স্থানীয় মানবাধিকার গ্রুপ ও আইনজীবীরা দাবি করেছেন, এগুলো সাধারণ ঘটনা। সরকার যে ব্যাপক নির্যাতন চালায় তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে মুসলমান নারীদের সন্তান জন্মদান ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়া। এটিকে মানবাধিকারের চূড়ান্ত লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছে বিভিন্ন দেশ ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো। তাদের মতে এটি সরাসরি মানুষের মৌলিক অধিকারের অমর্যাদা। ইন্ডিপেন্ডেন্ট বলছে, নিয়মিত ভিত্তিতে চালানো নজরদারিমূলক এসব পরিদর্শন চীনে মুসলিম উইঘুরদের ওপর চালানো পদ্ধতিগত দমননীতির অংশ। ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (13)
অচিন পথের পথিক ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৫ এএম says : 0
হে আল্লাহ তুমি মুসলমানদের হেফাজত কর।। ইমানি শক্তি বাড়িয়ে দাও।।
Total Reply(0)
Mohin U Choton ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
হে আল্লাহ যালিমের হয় হেদায়েত দাও,না হলে ধ্বংস করে দাও।আমিন
Total Reply(0)
Juwel Hossain ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৬ এএম says : 0
আল্লাহ রক্ষা করুন !
Total Reply(0)
Md Mohiuddin ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
আল্লাহ মুসলিম ভাই-বোনদের জান-মাল, ইজ্জত ও ঈমানকে হেফাজত করুক.............. আমিন
Total Reply(0)
S M Jamal Hasan ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
আমি জালিমকে সুযোগ দিই তাদের পাপকে পাকাপোক্ত করার জন্য। অতঃপর তাদের জন্য রয়েছে কঠিন শাস্তি।" (সূরা আল ইমরান: ১৭৮)
Total Reply(0)
Md Anwer ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
আল্লাহ পাক আপনি জালিমদের হাত থেকে হেফাজত কর মুসলমান মা বোনদের " আল্লাহ পাক রহম কর
Total Reply(0)
Mohammad AL Nur ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৭ এএম says : 0
বিশ্বে ইসলামি দেশের নেতাদেরকে আল্লাহ ঈমানী শক্তি বাড়িয়ে দিন না হলে ধ্বংস করে দিন।
Total Reply(0)
Rakibuzzaman Rakib ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৮ এএম says : 0
ইমাম মেহেদী আসলেই মুসলিমদের ওপর জুলুম নির্যাতনের অবসান হবে,,কাফের নাস্তিকরা প্রস্তুত থেকো সেইদিন আর বেশি দূরে নয়,,,,প্রত্যেক জুলুম নির্যাতনের হিসাব কড়ায়-গণ্ডায় নেয়া হবে,,,ইনশাআল্লাহ
Total Reply(0)
Firoz Alam Firoz ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৮ এএম says : 0
আল্লাহ্ যেন চীন সহ পৃথিবীর সকল মুসলমান ভাই বোনদের হেফাজত করে।
Total Reply(0)
ঝরা পাতা ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
এই সমস্যার সমাধান কবে হবে? ইয়া আল্লাহ তুমি ওদের রক্ষা করো।আমিন
Total Reply(0)
Rashed Maishan ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
আল্লাহ তুমি তাদেরকে সাহায্য করো এবং যারা তাদের উপর জুলুম করছে তাদেরকে হেদায়েত দাও আথবা চিরতরে শেষ করে দাও
Total Reply(0)
ইলিয়াস ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৯:৪৩ এএম says : 0
মুসলিম দেশেরও অভাব নেই নেতারও অভাব নেই । অভাব শুধু আত্মমর্যাদাবোধসম্পন্ন নেতৃত্বের।
Total Reply(0)
ইলিয়াস ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৯:৪৩ এএম says : 0
মুসলিম দেশেরও অভাব নেই নেতারও অভাব নেই । অভাব শুধু আত্মমর্যাদাবোধসম্পন্ন নেতৃত্বের।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন