ঢাকা, বুধবার , ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

নির্বাসন কাটিয়ে ক্রিকেটে ফিরছেন পৃথ্বী শ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৮:৪১ পিএম

আট মাসের নির্বাসন কাটিয়ে ফের ক্রিকেটে ফিরছেন পৃথ্বী শ। ভারতীয় ওপেনারকে মুম্বইয়ের হয়ে খেলতে দেখা যেতে পারে আসন্ন সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতে। এমনটাই খবর ইএসপিএনক্রিকইনফো-র। মুম্বাইয়ের অ্যাড-হক নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্য়ান মিলিন্দ রেগে বলছেন, ‘আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে খেলতে পারবে পৃথ্বী। অবশ্য়ই দল নির্বাচনের সময় ওর কথা আমরা ভেবে দেখব। কিন্তু এ বিষয়ে এখনই চূড়ান্ত কিছু বলতে পারছি না।’
রেগের প্য়ানেল মুম্বইয়ের প্রথম তিন ম্য়াচের জন্য দল বেছে নিয়েছে। দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার শ্রেয়স আয়ার, শার্দূল ঠাকুর ও শিবম দুূবে এই মুহূর্তে জাতীয় দলের সঙ্গে রয়েছেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে চলতি টি-২০ সিরিজে রয়েছেন তাঁরা। পৃথ্বী নির্বাসনের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে মুম্বইয়ে হাফ ডজনের ওপর ম্য়াচ খেলা হয়ে যাবে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফিতে।
চলতি বছর জুলাই মাসে বিসিসিআই পৃথ্বীকে সাসপেন্ড করেছিল। পৃথ্বী যে কাশির সিরাপ খেয়েছিলেন তাতে ছিল টারবুটালাইন, যা প্রায় কম-বেশি প্রতিটি কাশির সিরাপেই পাওয়া যায়।
ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা)-র নিয়ম মতে এটি একটি নিষিদ্ধ উপাদান। যা কোনও ক্রিকেটারের নেওয়া নিষিদ্ধ। আর কাশির ওষুধ সেবন করেই ক্রিকেট থেকে এই ক’মাস দূরে থাকতে হল পৃথ্বীকে।
গত ২২ ফেব্রুয়ারি ইন্দোরে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফি চলাকালীন মুম্বইয়ের তরুণ ক্রিকেটেরারে মূত্রের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। বোর্ডের অ্যান্টি ডোপিং টেস্টিং প্রোগ্রামেই পৃথ্বীর মূত্রে নিষিদ্ধ টারবুটালাইন পাওয়া যায়। এরপর বিসিসিআই ডোপিং সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে তাঁকে আট মাস সাসপেন্ড করে। নির্বাসিত থাকায় পৃথ্বী ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে খেলতে পারেননি। আসন্ন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দলে থাকছেন না তিনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন