ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

শান্তি ও সমৃদ্ধির পথ ইসলাম

কালজয়ী আদর্শ ইসলাম

উবায়দুর রহমান খান নদভী | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম | আপডেট : ১২:১০ এএম, ৯ নভেম্বর, ২০১৯

ইসলাম। শেষ যুগে আল্লাহ তাঁর শেষ নবীর মাধ্যমে যে পূর্ণাঙ্গ দীন ও শরীয়ত তথা জীবনব্যবস্থা কেয়ামত পর্যন্ত কালের জন্য মানবজাতির উদ্দেশ্যে প্রবর্তন করেছেন যাকে প্রকৃতির ধর্ম, সরল-সহজ জীবনবিধান ইত্যাদি নামে আল্লাহ এবং তাঁর রাসূল আখ্যায়িত করেছেন।

একজন নিরপেক্ষ মানুষ, একজন প্রকৃত জ্ঞানী মানুষ, একজন বিবেচনাবোধসম্পন্ন মানুষ যখন খুব কাছ থেকে ইসলামকে দেখবে, বুঝবে বা জানার চেষ্টা করবে তখন সে অপার বিস্ময়ে বাকরুদ্ধ হয়ে যেতে বাধ্য হবে এর মহিমা, পূর্ণতা ও সৌন্দর্য দেখে, এর রাসূলের নিষ্কলুষ বিশ^স্ততা, অকল্পনীয় সততা, সত্যবাদিতা, অনুপম চরিত্র, অপার মানবিকতা ও মহত্তম নৈতিকতা দেখে, তাঁর ওপর অবতীর্ণ কিতাবের অতুলনীয় বৈশিষ্ট্য ও একক শ্রেষ্ঠত্ব দেখে, সুন্নাহর সুরক্ষা ও পরিপালন, সাহাবীদের অভাবনীয় ও তুলনারহিত মানবীয় গুণাবলি আর মানুষের ইতিহাসে নজিরবিহীন প্রেম, প্রীতি, ভক্তি, ভালোবাসা, ত্যাগ, তিতিক্ষা ও অপরিসীম বিচিত্র গুণ-বৈশিষ্ট্য দেখে, যা পবিত্র ইসলাম মহাগ্রন্থ আল কোরআন ও শেষ নবী হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের মতোই আরেকটি অতুলনীয় শ্রেষ্ঠ নমুনা।

আল্লাহর রাসূল, কোরআন, সুন্নাহ, দ্বীন ও শরীয়তের পাশাপাশি সাহাবায়ে কেরামের জামাতের নাম ইসলামে সমান উল্লেখযোগ্য ও প্রাতস্মরণীয়। ঠিক তেমনি ইসলামের দীর্ঘ দেড় হাজার বছরের এই ভ্রমণ কোনো অংশেই যা বিস্ময়ের বাইরে নয়।
ইসলামের কোরআন সুরক্ষায় নিয়োজিত, এর বিশুদ্ধ পাঠ ও অধ্যয়নে নিবেদিত, এর শব্দ, বাক্য, গঠন, বিচ্ছেদ, ব্যাকরণ, অর্থ-মর্ম, অলঙ্কার ইত্যাদি নিয়ে জীবনপাতকারী, এর হস্তলিপি, সৌকর্য ও পান্ডুলিপি বিজ্ঞান নিয়ে চর্চাকারী, এর ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণ ও অর্থ-মর্ম উদ্ধারে নিয়োজিত শ্রেণি, এ থেকে বিধিবিধান ও উপবিধান বিশ্লেষণ করে শরীয়তে সন্নিবেশিত করা, সুন্নাহর মহাসমুদ্র থেকে একটি পূর্ণাঙ্গ জীবনশৈলী সঙ্কলন, লক্ষ লক্ষ হাদীস থেকে নির্ধারিত বিধি ও মূলনীতির আলোকে শরীয়া বিনির্মাণের মাল-মসলা সংগ্রহ, ওহী সুন্নাহ মানবীয় চিন্তা-গবেষণা, মেধা এবং শরীয়ত বাস্তবায়িতকারী ও নিজেদের জীবনে পরিপালনকারী ইসলামের প্রথম প্রজন্মের জীবনচিত্র থেকে নেয়া অভিজ্ঞতা ইত্যাদি সমন্বয়ে ইসলামী অনুশাসন বিনির্মাণে আইম্মায়ে মুজতাহিদীনের অবিস্মরণীয় অবদান ইসলামকে দিয়েছে শ্রেষ্ঠত্ব ও অমরত্ব।

পরিবর্তনশীল মানব বিশ^, মানবজীবন ও পরিবেশে কোনো একটি বিধানকে চিরস্থায়ী বলে ঘোষণা দেয়া, কোনো একটি কিতাবকে অপরিবর্তনীয় চির আবেদনময় ও সদাসর্বত্র প্রযোজ্য ঘোষণা দেয়া এ ধরনের একটি মানবীয়, প্রকৃতিসম্মত ওলামায়ে উম্মত, আইম্মায়ে মুজতাহিদীন বা ফুকাহায়ে কেরাম শ্রেণি ছাড়া মোটেও বাস্তবসম্মত, বিজ্ঞানসম্মত ও সম্ভব বলে গণ্য হতো না। ইসলামের কেরাত, তাজবিদ, তাফসীর, হাদীস, ফিকহ, উসূল ও এসবের সহায়ক জ্ঞান-বিজ্ঞান, বিদ্যা-ভাবনার জন্য নিবেদিত মনীষা মহান ইসলামের অনন্য বৈশিষ্ট্য ও এর রাসূলের অন্যতম মুজেযা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Khondker Momtaz Hasan ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
শুকরিয়া। ভালো লেখা হয়েছে।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ মোশাররফ ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৬ এএম says : 0
েইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামের ছায়াতলে আসতেই হবে।
Total Reply(0)
নীল প্রজাপতি ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৭ এএম says : 0
ইসলামকে আজ আদর্শ হিসেবে মেনে নিলে কতই না ভালো হতো।
Total Reply(0)
মোঃ তোফায়েল হোসেন ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১:২৭ এএম says : 0
আল্লাহ তায়ালা আমাদের ইসলামের পতাকাতলে বসার তৌফিক দিন।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন