ঢাকা, শুক্রবার , ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় জেলা প্রশাসন প্রস্তুত

সাতক্ষীরায় ১০ নং সতর্ক সংকেত, ঝড়-বৃষ্টিসহ নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি

সাতক্ষীরা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:৩৬ এএম

ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এর প্রভাবে সাতক্ষীরায় আজ শনিবার ভোর থেকে হালকা থেকে ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। একই সাথে বইছে ঝড়ো হাওয়া। সীমান্ত নদী ইছামতিসহ উপকূলীয় এলাকার নদ-নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারের চাইতে দুই ফুটের মতো পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আজ রাত ৮ টা থেকে ১২ টার মধ্যে সাতক্ষীরার সুন্দরবন এলাকা দিয়ে খুলনা এলাকা অতিক্রম করতে পারে বলে আবহাওয়া অফিস সূত্র জানিয়েছে।

এদিকে, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাতক্ষীরায় ১০ নং সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। আতংকিত না হয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। উপকূলীয় এলাকার মানুষ ও গবাদি পশুদের নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণার পাশাপাশি সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করে স্ব-স্ব এলাকায় অবস্থান ও হাসপাতাল, কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো সার্বক্ষণিক খোলা রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল মোকাবেলায় সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে দূর্গত এলাকার মানুষের জন্য নগত টাকা চাল-ডাল ও শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর নেওয়ার জন্য জেলা প্রাশসন ও উপজেলা প্রশাসন মনিটরিং এর ব্যবস্থা করেছে। দুর্যোগের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি কমাতে ও মানুষের জানমালের নিরাপত্তায় জেলার ২৭০টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ১২শ স্কুল-কলেজ বিকল্প আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত রয়েছে। একই সাথে প্রত্যেক ইউনিয়নে মেডিকেল টিম প্রস্তুতকরণ, পর্যাপ্ত শুকনো খাবার ও খাওয়ার পানি মজুদ রাখা, দুর্যোগকালীন ও দুর্যোগ পরবর্তী সময়ে উদ্ধার কার্যক্রম চালানোর জন্য ফায়ার সার্ভিস, অ্যাম্বুলেন্স ও স্বেচ্ছছাসেবক প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন