ঢাকা, রোববার , ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সম্রাটের অবৈধ সম্পদ প্রায় ৩ কোটি টাকার

দুদকের মামলা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম

বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন সম্রাটের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এছাড়া তার সহযোগী মো. এনামুল হক আরমানের বিরুদ্ধেও মামলা করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার উপ-পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম এবং মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে পৃথক দু’টি মামলা করেন।
মামলায় উভয়ের বিরুদ্ধে দুদক আইনের ২৭(১) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। ইসমাইল হোসেন সম্রাটের বিরুদ্ধে ২ কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়। তার পরিচয় উল্লেখ করা হয়েছে ‘মেসার্স হিজ মুভিজ’র মালিক হিসেবে।

এনামুল হক আরমানের পরিচয় উল্লেখ করা হয়, ‘মেসার্স আরমান এন্টারপ্রাইজ’ মালিক হিসেবে। আরমানের বিরুদ্ধে ২ কোটি ৫ লাখ ৪০ হাজার টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মতিঝিলের ক্লাবপাড়ায় র‌্যাবের অভিযানে অবৈধ ক্যাসিনো চলার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। পরপরই আত্মগোপনে চলে যান যুবলীগের প্রভাবশালী নেতা সম্রাট। গত ৭ অক্টোবর কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে সম্রাট ও তার সহযোগী এনামুল হক আরমানকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। সেদিন বিকেলে সম্রাটকে সঙ্গে নিয়ে কাকরাইলের ভূইয়া ট্রেড সেন্টারে তার কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। ৫ ঘণ্টা অভিযান শেষে গুলিসহ একটি বিদেশি পিস্তল, ১১৬০ পিস ইয়াবা, ১৯ বোতল বিদেশি মদ, দু’টি ক্যাঙ্গারুর চামড়া এবং ‘নির্যাতন করার’ বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম পাওয়ার কথা জানানো হয় র‌্যাব থেকে।
ক্যাঙ্গারুর চামড়া পাওয়ার কারণে সম্রাটকে তাৎক্ষণিকভাবে বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ) আইনে ৬ মাসের কারাদন্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেদিনই তাকে পাঠিয়ে দেয়া হয় কেরানীগঞ্জ কারাগারে। কুমিল্লায় অভিযানের সময় যুবলীগ নেতা আরমানকে মদ্যপ অবস্থায় পাওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত তাকে ৬ মাসের কারাদন্ড দেন। তার কাছে ১৪০ পিস ইয়াবা পাওয়ায় চৌদ্দগ্রাম থানায় মাদক আইনে তার বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করে র‌্যাব। তারা উভয়েই এখন কারাগারে রয়েছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন