ঢাকা, শুক্রবার , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ব্যর্থতা নিরূপণে তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার দায়ভার কার তা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম-সচিব পদমর্যাদার নিচে নয়, এমন ব্যক্তিকে নিয়ে কমিটি করে তদন্ত করার নির্দেশ দেয়া হয়।

গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি তারিক উল হাকিম এবং বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের ডিভিশন বেঞ্চ এই নির্দেশ দেন। আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে। ঢাকা মহানগরীর দুই সিটির মশা নিধনে গৃহীত পদক্ষেপের বিষয়ে জারিকৃত রুলের চূড়ান্ত শুনানির পর এ আদেশ দেয়া হয়। এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশেনের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডভোকেট তৌফিক ইনাম টিপু। সরকারপক্ষে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার কাজী মাঈনুল হাসান। আদেশের বিষয়ে তৌফিক ইনাম টিপু বলেন, গত মে মাসে ডেঙ্গু বিষয়ে হাইকোর্ট স্বপ্রণোদিত হয়ে রুল জারি করেন। এ ধারাবাহিকতায় আজকে মামলাটি এসেছিল। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে কী কাজ করা হয়েছে সে বিষয়ে ঢাকা উত্তর এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন থেকে আমরা আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছি। শুনানি শেষে আদালত বলেছেন, সরকারি হিসাবে ১১২ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। এর পেছনে নিশ্চয়ই কোনো অবহেলা ছিল।

আদালত ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে কোনো ব্যর্থতা বা গাফিলতি আছে কি না সেটি তদন্ত করতে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজের নেতৃত্বে একটা তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছেন। ওই কমিটিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিবের নিচে নয়, এমন একজন পদমর্যাদার কাউকে সংযুক্ত করতে বলা হয়েছে।

এই কমিটি আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে প্রতিবেদন দেবে। তদন্ত কমিটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কীটতত্ত্ব বিভাগ, আইসিডিডিআর,বি, গণস্বাস্থ্য বিভাগ, প্ল্যান প্রটেকশন উইংয়ের সাহায্য সহযোগিতা নিতে পারবে। এর বাইরেও যাদের যাদের সহযোগিতা দরকার তাদের সহযোগিতাও নিতে পারবে।
এর আগে সরকারের পক্ষ থেকে একটি প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করা হয়। যেখানে সরকারি হিসাবে ১১২ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলে জানানো হয়। গত ২৮ আগস্ট এক আদেশে আদালত ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকারের নেয়া কাজের অগ্রগতি জানাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন।

ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্ক শুরু হলে গত ৪ জুলাই স্বতঃপ্রণোদিত আদেশে ঢাকা সিটিতে ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়াসহ এডিস মশা নির্মূল ও ধ্বংসে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশসহ রুল জারি করেন হাইকোর্ট। পরে কয়েক দফায় এর ওপর শুনানি হয় এবং নির্দেশনা দেন আদালত। আদালতের আদেশে জরুরি ভিত্তিতে বিদেশ থেকে কীটনাশক এনে ডেঙ্গু এডিস মশা নিধন করছে সিটি করপোরেশন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন