ঢাকা, শনিবার , ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

মুস্তাফিজকে নিয়ে সতর্ক কোহলি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না তার। টি-টোয়েন্টি সিরিজে ছিলেন একদম বিবর্ণ। তিন ম্যাচের একটাতেও পাননি কোনো উইকেট, রান দিয়েছেন দেদারসে (৯.৫ ওভারে ৯১)। কেবল মার খাওয়া আর উইকেটশূন্য থাকা-ই নয়, ধারহীন বোলিংয়ে ব্যাটসম্যানদের ধন্দেও ফেলতে পারেননি একটি বারের জন্যও। আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া ইন্দোরে প্রথম টেস্টে তাকে নামানো হবে কি-না, তা নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। তবে নামটি মুস্তাফিজুর রহমান বলেই টেস্ট সিরিজের আগে আলাদা করে তার কথাই বললেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

কিন্তু মুস্তাফিজের নিষ্প্রভ টি-টোয়েন্টি পারফরম্যান্স আমলেই আনছেন না কোহলি। বাঁহাতি পেসারদের বিপক্ষে নিয়মিত খেলার অনভ্যস্ততা থেকে টেস্ট সিরিজে মুস্তাফিজকে হুমকি মনে করছে ভারত। কাটার মাস্টারকে তিনি মাপছেন তার যোগ্যতা ও সামর্থ্য দিয়েই, ‘ও খুব ভালো বোলার। তার বিপক্ষে আমরা অনেক খেলেছি। এখন লাল বলে খেলা। হ্যাঁ, যেকোনো বাঁহাতি পেসার আমাদের কাছে ভিন্ন রকমের বোলার। এই কারণে বাড়তি একটু সতর্কতা লাগবে।’

টেস্টে ভারতের পেস আক্রমণে আছেন ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামি, উমেশ যাদবরা। এদের প্রত্যেকেই ডানহাতি পেসার। স্কোয়াডে বাঁহাতি পেসার না থাকায় অনুশীলনে মানসম্পন্ন বাঁহাতি পেস খুব একটা খেলা হয় না ভারতের। এই জায়গাতেই মুস্তাফিজকে নিয়ে চ্যালেঞ্জ দেখছেন কোহলি, ‘আমাদের দলে যেহেতু বাঁহাতি পেসার খুব একটা নেই, কাজেই এটা এক ধরনের চ্যালেঞ্জ। কিন্তু আপনাকে এসব চ্যালেঞ্জ নিয়ে এগোতে হবে। এর মানে এই না যে বাঁহাতি পেসারদের বিপক্ষে আমরা কুঁকড়ে যাই। একটু বেশি কঠিন লাগে, কারণ আমরা বেশি বাঁহাতি পেস খেলি না। সেদিক দিয়ে ও আমাদের জন্য হুমকি। বাংলাদেশের মূল খেলোয়াড়ও (মুস্তাফিজ)। সে আইপিএল খেলার কারণে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের সম্পর্কে জানে। আমরাও তাকে খেলেছি। তবু আমার মনে হয় বাড়তি সতর্ক থাকা লাগবে।’

সিরিজের তিন ম্যাচে ভারতের তিন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান করেন ডাবল সেঞ্চুরি। প্রথমটিতে মায়াঙ্ক আগারওয়াল, পরেরটিতে কোহলি, তৃতীয় ম্যাচে রোহিত শর্মা। কোনো ইনিংসে অলআউট হয়নি ভারত। সিরিজে হারায় মোটে ২৫ উইকেট। এমনই দূর্দান্ত দলীয় পারফরম্যান্সে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হোয়াইটওয়াশ করা ভারত অবশ্য নিজেদের ছকও এঁকে রেখেছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে। কোহলি জানালেন, আরেকটি সিরিজ জিততে প্রক্রিয়া ঠিক রাখার দিকে মনোযোগ দিচ্ছেন তারা, ‘ওরা (বাংলাদেশ) একই ধরনের কন্ডিশনে খেলে অভ্যস্ত। আমরা জানি, ওরা নিজেদের গেম প্ল্যানটা জানে, ওরা জানে কি করতে হবে। ফল পেতে আমাদের ভালো খেলতে হবে, যেমনটা আগের প্রতিটা ম্যাচে খেলেছি। আমার কোনো দলকে হালকাভাবে নিচ্ছি না। বাংলাদেশের কোনো বোলার বা ব্যাটসম্যানকে আমরা হালকাভাবে নিচ্ছি না। যখন ওরা ভালো খেলে তখন খুব চৌকষ দল হয়ে ওঠে। ওদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে। আমরা আমাদের প্রক্রিয়া ঠিক রেখে এগোবো।’

২০১৫ সালে ভারতকে কাঁপিয়ে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আলোড়ন তুলেছিলেন মুস্তাফিজ। এই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে সীমিত পরিসরের অনেকগুলো ম্যাচ খেললেও এখনো নামেননি টেস্টে। এবার সাদা পোশাকে প্রথমবার ভারতকে পাবেন মুস্তাফিজ। ইন্দোরের হোল্কার স্টেডিয়ামের উইকেট বানানো হয়েছে শক্ত লাল মাটি দিয়ে। এখানকার উইকেট থেকে পেসারদেরই বাড়তি সুবিধা পাওয়ার কথা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন