ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

রোহিঙ্গা নির্যাতনের দায়ে সু চি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০১ এএম


রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপরে নির্যাতনের দায়ে মিয়ানমারের ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সু চি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই মামলায় মিয়ানমারের শীর্ষস্থানীয় একাধিক কর্মকর্তাও আছেন। গত বুধবার রোহিঙ্গা ও লাতিন আমেরিকান কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন এই মামলা দায়ের করে।
যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে সু চি’র বিরুদ্ধে ইউনিভার্সাল জুরিসডিকশন’র আওতায় এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই নীতি মেনে, বিশ্বের যেকারো বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ বা মানবতাবিরোধী অপরাধের ক্ষেত্রে মামলা দায়ের ও বিচারকার্য চালাতে পারে যেকোনো রাষ্ট্র বা আন্তর্জাতিক সংগঠন। শান্তিতে নোবেল বিজয়ী সু চি রোহিঙ্গা নির্যাতনের দায়ে এই প্রথম মামলার মুখোমুখি হয়েছেন। মামলাটি দায়ের করেছেন আইনজীবী টমাস ওজেয়া। তিনি বলেন, এই অভিযোগ গণহত্যার জন্য দায়ের করা হয়েছে। একইসঙ্গে অপরাধী ও তার সহযোগীদের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে। এছাড়া গণহত্যার সব তথ্য প্রকাশের জন্যও দাবি করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, আর্জেন্টিনায় এই মামলা করেছি কারণ এভাবে মামলা দায়ের করার সুযোগ এখানে ছাড়া আর কোথাও পাব না। বার্মিজ রোহিঙ্গা অর্গানাইজেশন ইউকে’র প্রেসিডেন্ট তুন খিন বলেন, দশকের পর দশক ধরে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ আমাদের ঘেটোতে আটকে রেখে, বাড়ি ছেড়ে পালাতে বাধ্য করে, হত্যা করে মুছে ফেলতে চেয়েছে।

মামলায় সুচি সহ মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং ও শীর্ষ সামরিক ও রাজনৈতিক নেতাদের বিচারের সম্মুখীন করার দাবি জানানো হয়েছে। কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, তাদের জন্য অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে রোহিঙ্গারা। এর আগে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়া আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা দায়ের করে। আর্জেন্টিনার আদালতে আগেও এমন মামলা দায়ের হয়েছে। এর মধ্যে ফ্রান্সের সাবেক একনায়ক ফ্রান্সিসকো ফ্রাংকোর স্পেন শাসন ও চীনের ফালুন গং আন্দোলন নিয়ে মামলা রয়েছে। ২০১৭ সালে নৃশংস সামরিক অভিযানে রোহিঙ্গাদের হত্যা ও বাড়িছাড়া করার পর থেকে আন্তর্জাতিক আদালতগুলোয় একাধিক মামলার শিকার হয়েছে মিয়ানমার। বহু দেশ তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানের নামে হত্যাযজ্ঞ চালায় মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী। তাদের নৃশংসতা থেকে বাঁচতে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে সাড়ে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা। সূত্র: এএফপি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন