ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সখিপুরে সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আলভীসহ আহত তিন

সখিপুর(টাঙ্গাইল)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ৯:১৭ পিএম

টাঙ্গাইলের সখিপুরে সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আলভী খানসহ তিন জন গুরুতর আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় একটি শালিসী বৈঠক চলাকালে বাবার সামনেই উপজেলার নলুয়া হাইস্কুল মাঠে তাদেরকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় রাতেই তাদেরকে উদ্ধার করে সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।এদের মধ্যে অবস্থা খারাপ হলে আলভীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহতরা হচ্ছে নলুয়া গ্রামের মোতালেব খানের ছেলে ও সরকারি মুজিব কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র যাদবপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য আলভী খান, একই গ্রামের মোস্তাক আহমেদের ছেলে আরাফাত রহমান (১৮) এবং আবদুল কাদেরের ছেলে সাজিদ হাসান (২০)। এ ঘটনায় আলভীর বাবা মোতালেব খান বাদী হয়ে ওই রাতেই হামলাকারী বোয়ালী ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র নলুয়া আড়ালিয়া পাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য সিদ্দিক হোসেনের ছেলে সোহাগ আহমেদকে প্রধান আসামি করে মামলা করেছেন। জানা যায়, গত ১৩ নভেম্বর বিকেলে ছাত্রলীগ নেতা আলভী খান নলুয়া বাজারের তালতলা ষ্টেশনে গেলে একই গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য সিদ্দিক হোসেনের ছেলে সোহাগ আহমেদের কথা কাটাকাটি হয়। পরের দিন ১৪ নভেম্বর সন্ধ্যায় বিষয়টি মীমাংসার কথা বলে সোহাগের বাবা সিদ্দিক হোসেন আলভীর বাবা মোতালেব খানকে মুঠোফোনে আলভীকে নিয়ে নলুয়া বাছেদ খান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আসতে বলে। পরে মোতালেব খান ছেলে আলভীকে নিয়ে স্কুল মাঠে যাওয়ার পরপরই আলভীর ওপর লোহার রড ও রাম দা নিয়ে হামলা চালায় সোহাগ ও তার লোকজন। এ সময় আলভীর বন্ধু আরাফাত ও সাজিদ এগিয়ে গেলেও তাদেরকে মারধর করা হয়। মামলার বাদী আলভীর বাবা মোতালেব খান বলেন- সোহাগের বাবা পরিকল্পিতভাবে তাদেরকে ডেকে নিয়ে হত্যা করার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়। তিনি হামলাকারী সোহাগসহ জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।
সখিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ( ওসি তদন্ত) এএইচএম লুৎফুল কবির বলেন,উভয় পক্ষের দুইটি অভিযোগ পেয়েছি,প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন