ঢাকা, শনিবার , ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

আসামে এনআরসি-র টার্গেট মুসলিমরাই, মার্কিন কমিশনের রিপোর্ট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:০৭ পিএম

নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি)-র নামে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে বেছে বেছে মুসলমানদের নিশানা করা হচ্ছে। তাদের রাষ্ট্রহীন করে দিতে এনআরসি তালিকাকে হাতিয়ার করছে ভারত সরকার। আসামে নাগরিক পঞ্জি তৈরি নিয়ে শুক্রবার মোদি সরকারের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ তুলল আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক মার্কিন কমিশন (ইউএসসিআইআরএফ)।

চলতি বছর ৩১ আগস্ট সরকার আসামে নাগরিক পঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করলে দেখা যায়, ১৯ লাখের বেশি মানুষের নাম বাদ গিয়েছে তা থেকে। তা নিয়ে শুক্রবার ‘ইস্যু ব্রিফ: ইন্ডিয়া’ নামের একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে ইউএসসিআইআরএফ। তাতে বলা হয়, ‘বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেছে বিভিন্ন ভারতীয় এবং আন্তর্জাতিক সংগঠন। তাদের মতে, আসামের বাঙালি মুসলিমদের বঞ্চিত করতে, একটা বড় অশের মুসলিমকে রাষ্ট্রহীন করতে এবং ঘুরপথে ধর্মীয় পরিচয়কেই নাগরিকত্বের ক্ষেত্রে অপরিহার্য করে তোলার কার্যসিদ্ধির জন্যই এনআরসিকে হাতিয়ার করা হয়েছে।’

নীতি বিশ্লেষক হ্যারিসন একিন্সের তদারিকতে ওই রিপোর্টটি তৈরি করেছে ইউএসসিআইআরএফ। তাতে আরও হয়, ‘ভারতে ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার যে ক্রমশ নিম্নমুখী হচ্ছে, সংখ্যালঘু মুসলিমদের বিতাড়ন করার এই প্রচেষ্টাই তার অন্যতম উদাহরণ। অগস্ট মাসে এনআরসি’র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হওয়ার পর বিজেপি সরকার এমন কিছু পদক্ষেপ করেছে, তাতে তাদের মুসলিম বিরোধী মনোভাবই প্রতিফলিত হয়েছে। মুসলিমদের বাদ দিয়ে হিন্দু এবং বাছাই করা কিছু সংখ্যালঘুদের সুবিধা করে দিতেই যে নাগরিকত্ব পাওয়ার ক্ষেত্রে ধর্মীয় পরীক্ষার আয়োজন, বিজেপির ইঙ্গিতেই তা স্পষ্ট।’ বিষয়টি নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করা হয়নি। সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন