ঢাকা, শুক্রবার , ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যেখানে কুরআন পোড়ানো হয়েছে সেখানেই আজ বাজছে কোরআনের ধ্বনি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:১৪ পিএম

সম্প্রতি নরওয়ের যে স্থানটিতে কয়েকদিন আগে কিছু উগ্রপন্থী কতৃক কুরআন পোড়ানোর ঘটনা ঘটেছে, সেখানে এবার আল-কুরআনের তেলাওয়াত হচ্ছে। আর অনেক মানুষ মনোযোগ দিয়ে সেই তেলাওয়াত শুনছেন। সেই জায়গাটিতে সাউন্ড বক্সে সূরা হামীম সাজদার কয়েকটি আয়াত তেলাওয়াত করা হচ্ছে। আর সামনে দাঁড়িয়ে অনেক মানুষ সেই তেলাওয়াত শুনছেন।
ইউরোপের দেশ নরওয়েতে ইসলাম গ্রহণের হার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। দেশটিতে প্রতিদিন গড়ে ৮ জন ভিন্নধর্মী লোক মুসলমান হচ্ছেন। দৈনিক ভারডেনস গ্যাঙ্গে-এর এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে। ইসলাম গ্রহণের সাথে সাথে দেশটিতে ইসলামফোবিয়ার হারও বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিদিনই মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ সন্ত্রাসবাদের শিকার হচ্ছেন দেশটিতে।
প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে উত্তর ইউরোপের দেশ নরওয়েতে এক খৃস্টান কোরআনের একটি কপি জ্বালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে জনসম্মুখে তার উপর ঝাপিয়ে কোরআনের কপিটি রক্ষা করতে চেষ্টা করেন ইলিয়াস নামের এক যুবক। কোরআন রক্ষার এই ভিডিওটি সমাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিশ্বজুড়ে তার প্রশংসা করা হয় এবং কুরআন পোড়ানোর এ ঘটনায় সামাজিক মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় ওঠে।
তবে মুসলিমরাও বসে নেই; চলছে আন্দোলন প্রতিবাদ। এর আগে রাস্তায় বসে কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে তাদের অভিনব এক প্রতিবাদ বিশ্বব্যাপী মুসলিমদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে।
এবার যে পার্কটিতে কুরআন পোড়ানো হয়েছিল সেখানেই এখন বাজছে কুরআনের ধ্বনি। সেখানকার মুসলিমরা পার্কে সাউন্ড বক্সে কুরআনের তিলাওয়াত বাজিয়েছে। আর তা শুনতে স্বতস্ফূর্তভাবে দলে দলে জড়ো হয়েছে দেশটির সাধারণ জনগণ।
নরওয়ের সাধারণ মানুষরা জানিয়েছেন যে, কুরআন পোড়ানোর ঘটনায় নরওয়েতে ইসলাম আরও বেশি প্রসারিত হবে। মানুষ আরও বেশি আগ্রহী হবে কুরআনের প্রতি।
উল্লেখ্য, ১৯৬০ এর দশকে প্রথম নরওয়েতে মুসলমানদের অবস্থান দৃশ্যমান হতে থাকে। ১৯৭৪ সালে রাজধানী অসলোতে প্রথম মসজিদ স্থাপিত হয়। বর্তমানে নরওয়েতে মুসলমানরা দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় জনগোষ্ঠী। ২০১১ সালের হিসাব অনুযায়ী দেশটিতে মোট জনসংখ্যার ২.৩ শতাংশ মুসলমান।
নরওয়ের সাধারণ মানুষরা জানিয়েছেন যে, কুরআন পোড়ানোর ঘটনায় নরওয়েতে ইসলাম আরও বেশি প্রসারিত হবে। মানুষ আরও বেশি আগ্রহী হবে কুরআনের প্রতি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
MD. Julhas uddin ২৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৫৫ পিএম says : 0
নো নেভার এই কিতাব কোনো মানুষের কিতাব নয়।এই কিতাব এক মাত্র আল্লাহর সেএইকিতাব সেখানা রাখবেই রাখবে। ইনসাআল্লাহ
Total Reply(0)
MD. Julhas uddin ২৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৫৬ পিএম says : 0
নো নেভার এই কিতাব কোনো মানুষের কিতাব নয়।এই কিতাব এক মাত্র আল্লাহর সেএইকিতাব সেখানে রাখবেই রাখবে। ইনসাআল্লাহ
Total Reply(0)
MD. Julhas uddin ২৬ নভেম্বর, ২০১৯, ৬:৫৫ পিএম says : 0
নো নেভার এই কিতাব কোনো মানুষের কিতাব নয়।এই কিতাব এক মাত্র আল্লাহর সেএইকিতাব সেখানা রাখবেই রাখবে। ইনসাআল্লাহ
Total Reply(0)
Bazlur Rahman ২৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:১৯ পিএম says : 0
যদি আগুন লেগে ধ্বংস হয়, পৃথিবীর সব বইয়ের দোকা। তবু বিশ্ব থেকে হারাবে না পবিত্র কোরআন।
Total Reply(0)
Bazlur Rahman ২৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:২১ পিএম says : 0
যদি আগুন লেগে ধ্বংস হয়, পৃথিবীর সব বইয়ের দোকা। তবু বিশ্ব থেকে হারাবে না পবিত্র কোরআন।
Total Reply(0)
Raijuddin Ahamed ২৭ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:৫০ এএম says : 0
No one can destroy Al Quran. InshA Allah the count of Muslims will increase in unlimited number.
Total Reply(0)
It’s is ultimate truth. Allah may help us to spread islam all through the world. ২৭ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:১৭ পিএম says : 0
It is ultimate Truth. In this way Allah may help us to spread islam all through the world. Thanks a lot Inqilab for knowing us.
Total Reply(0)
Muhammad Rashed ২৭ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:৪৭ পিএম says : 0
আল্লাহর জন্যই সমস্ত প্রসংশা এবং তাঁর প্রিয় বন্ধু নূর নবী মুহাম্মদ (স)'র উপর লাখ লাখ দরূদ সালাম।এই সংবাদ আসলেই প্রতিটি মুসলিমের জন্য আনন্দের ও গর্বের।দিকে দিকে আবার ছড়িয়ে পড়ুক একত্ববাদের আহবান।একতা আসুক আমাদের মাঝে জয় হোক শান্তি ও মানববতার
Total Reply(0)
যারা কুরআন পুড়েছে তারা তাদের ভাগ্য পুড়েছে।আর যারা প্রতিবাদ করেছে এবং কুরআন তেলাওয়াত করছে তারা নিজেদেরকে সৌভাগ্যবান হিসেবে গড়তে সক্ষম হয়েছে। আল্লাহ সহায় হউন। আমীন
Total Reply(0)
Nisar Ahmed ২ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৪:২৭ পিএম says : 0
Islam is the peaceful religious.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন