ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

রাজধানীতে অপরাধমূলক কর্মকান্ড কমেছে: সাঈদ খোকন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৬:৫৪ পিএম

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, সড়কে এলইডি বাতি লাগানোর ফলে রাজধানীতে ছিনতাই, সন্ত্রাসীসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড কমে এসেছে। সাঈদ খোকন আজ নব সজ্জিত আউটফল স্টাফ কোয়ার্টার পার্ক এবং তেলেগু ক্লিনারদের আবাসনের জন্য নবনির্মিত পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাসের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, “এলইডি লাইটের স্নিগ্ধ আলোয় ঢাকা আজ আলোকিত। ফলে কমে এসেছে ছিনতাই, সন্ত্রাসীসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড। অনেকেই এখন পুরনো ঢাকার এ আলোকিত নগরী উপভোগ করতে আসেন।”

প্রায় ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ধলপুর তেলেগু পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাস এবং ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নব সজ্জিত আউটফল স্টাফ কোয়ার্টার পার্কের উন্নয়ন করা হয়।

মেয়র বলেন, এ এলাকায় অবস্থিত কর্পোরেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীদের সন্তানরা যেন খেলাধূলা সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে সুন্দর পরিবেশে বেড়ে উঠতে পারে সেলক্ষ্যে এই পার্ক এবং পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে এই পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাসের উদ্বোধন করা হয়েছে।

তিনি জানান, পুরো দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকা জুড়েই ১৯টি পার্ক এবং ১২টি খেলার মাঠ বিশ্বমানের করে গড়ে তোলা হচ্ছে। অনেকগুলো ইতোমধ্যে নগরবাসীর জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। কয়েকটির নির্মাণ কাজ শেষে উদ্বোধনের অপেক্ষাধীন রয়েছে। এসব উন্নয়ন কাজ সমাপ্তি শেষে উন্মুক্ত করে দেয়া হলে পুরো দক্ষিণ ঢাকা এক অনিন্দ্যসুন্দর রূপ লাভ করবে।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় এমপি আলহাজ হাবিবুর রহমান মোল্লাসহ কর্পোরেশনের ওয়ার্ড কাউন্সিলরগণ প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ ইমদাদুল হক ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

১২ কাঠা জায়গা নিয়ে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নব সজ্জিত আউটফল স্টাফ কোয়ার্টারে শিশুদের খেলার মাঠ, ওয়াকওয়ে, ছাদবাগান, পাঠাগার, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলরুম, বৈদ্যুতিক বাতির ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

অন্যদিকে ১৭ কাঠা জমির উপর ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত তেলেগু পরিচ্ছন্নকর্মী নিবাসে প্রতিটি ফ্লাটে বেডরুম, ডাইনিং কাম ড্রয়িং রুম, রান্না ঘর, টয়লেট, বারান্দা ইত্যাদি সুবিধাসম্বলিত ৯০টি ফ্লাট, প্রতিটি ফ্লাটের জন্য পৃথক পৃথক বৈদ্যুতিক মিটার, সোলার সিস্টেম, পয়নিষ্কাশন ব্যবস্থা, বৈদ্যুতিক সাব স্টেশন, সীমানা প্রাচীর, ওয়াকওয়ে, প্রবেশ ও বহি:গমন গেটের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
ash ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৫:২৬ এএম says : 0
DONT JUST SITS THERE, GET OUT , CLEAN THE DHAKA CITY
Total Reply(0)
Nadim ahmed ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২:৪২ পিএম says : 0
Only an Awamileague leader can say that the crime activities are reduced in the capital. Because they do not know the reality, they are only living in imagination.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন