ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

ইউএস-বাংলার বহরে যুক্ত হচ্ছে আরো দু’টি ব্র্যান্ড নিউ এটিআর ৭২-৬০০

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৫:২৪ পিএম

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বহরে নতুন বছরের শুরুতে দু’টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ এয়ারক্রাফট সংযোজিত হতে যাচ্ছে। দেশের সর্ববৃহৎ বেসরকারী বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলা অভ্যন্তরীণ রুটে নেতৃত্বদানকারী এয়ারলাইন্স, যার বিমান বহরে বর্তমানে ১৬৪ আসনের ৪টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, চারটি এটিআর ৭২-৬০০ ও তিনটি ড্যাশ৮-কিউ৪০০ সহ মোট এগারোটি এয়ারক্রাফট রয়েছে। বর্তমানে সংযোজনের অপেক্ষায় থাকা নতুন দুটি এয়ারক্রাফট এটিআর ৭২-৬০০, যা ফ্রান্স থেকে সরাসরি ইউএস-বাংলার বিমান বহরে যুক্ত হবে।

আগামী জানুয়ারী মাসের তৃতীয় সপ্তাহে পর্যায়ক্রমে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের দ্বাদশ এয়ারক্রাফট (এটিআর ৭২-৬০০ এমএসএন ১৫৮৯) ও ত্রয়োদশ এয়ারক্রাফট (এটিআর ৭২-৬০০ এমএসএন ১৫৯০) বিমান বহরে যুক্ত হতে যাচ্ছে। নতুন এয়ারক্রাফট ইউএস-বাংলার বহরে যুক্ত হতে যাওয়ায় বর্তমানে পরিচালিত বিভিন্ন অভ্যন্তরীণ গন্তব্যে ফ্লাইট সংখ্যা বৃদ্ধি করারও পরিকল্পনা রয়েছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স একমাত্র দেশীয় বিমান সংস্থা, যা ব্র্যান্ডনিউ এয়ারক্রাফট দিয়ে অভ্যন্তরীণ রুটে যাত্রীদের সেবা প্রদান করে যাচ্ছে।

২০১৪ সালের ১৭ জুলাই দু’টি ড্যাশ৮-কিউ৪০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে ইউএস-বাংলা ঢাকা থেকে যশোরে উদ্বোধনী ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে। অভ্যন্তরীণ রুটে সবচেয়ে বেশী সংখ্যক যাত্রী পরিবহন করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। বর্তমানে প্রতিদিন ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে ১০টি, কক্সবাজারে ৬টি, সৈয়দপুরে ৫টি, যশোরে ৫টি, রাজশাহীতে ২টি, সিলেটে ২টি এবং বরিশালে ১টি ফ্লাইট নিয়মিত চলাচল করছে। বর্তমানে ইউএস-বাংলা আন্তর্জাতিক রুট সিঙ্গাপুর, কুয়ালালামপুর, ব্যাংকক, গুয়াংজু, মাস্কাট, দোহা চেন্নাই ও কলকাতায় ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

স্বাধীনতার পর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স-ই একমাত্র দেশীয় বিমান সংস্থা যা, চীনের কোনো গন্তব্যে বা ভারতের চেন্নাই-এ সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

‘ফ্লাই ফাস্ট-ফ্লাই সেফ’ স্ল্গোান নিয়ে যাত্রা শুরু করা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স, আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট সংখ্যা বৃদ্ধি এবং নতুন গন্তব্য ফ্লাইট পরিচালনার লক্ষ্য হিসেবে অধিক সংখ্যক উড়োজাহাজ দ্রুততম সময়ে বিমান বহরে যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে।

ভবিষ্যত পরিকল্পনার অংশ হিসেবে, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স জেদ্দা, দাম্মাম, রিয়াদ, হংকং, দিল্লী, কলম্বো, মালে সহ বিভিন্ন রুটে ফ্লাইট চালানোর পরিকল্পনা করছে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রা শুরুর পর থেকে অন-টাইম ফ্লাইট অপারেশন, আন্তর্জাতিক মানের কেবিন সার্ভিস, উন্নত মানের নিজস্ব ক্যাটারিং সার্ভিস, যা যাত্রী সাধারনের কাছে একটি নির্ভরযোগ্য এয়ারলাইন্স হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। ইউএস-বাংলা’র সঠিক সময়ে ফ্লাইট পরিচালনার রেকর্ড শতকরা ৯৮ দশমিক ৭ ভাগ।

দু’টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ বিমান বহরে যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, বর্তমান বিশ্বে যাত্রীদের সঠিক সেবা প্রদান করার জন্য ব্র্যান্ডনিউ এয়ারক্রাফটের কোনো বিকল্প নেই। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স যাত্রীদের আরামদায়ক সেবাকে নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই প্রতিনিয়ত নতুন নতুন এয়ারক্রাফট বহরে যুক্ত করে চলেছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স-ই একমাত্র দেশীয় বিমান সংস্থা, যারা অভ্যন্তরীণ রুটে ব্র্যান্ডনিউ এয়ারক্রাফট দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। ইনশাল্লাহ নিকট ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক রুটেও ব্র্যান্ডনিউ এয়ারক্রাফট বহরে যুক্ত করার পরিকল্পনা করছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন