ঢাকা, শুক্রবার , ১৭ জানুয়ারী ২০২০, ০৩ মাঘ ১৪২৬, ২০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

প্রতারণার শিকার রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছেন, প্রবাসি ব্যবসায়ী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

দুবাইয়ের দীর্ঘ দিনের ব্যবসায়ী প্রবাসী আবুল কালাম স্বদেশীর প্রতারণার শিকার হয়ে বর্তমানে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছেন। মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর থানার ওয়াইজ নগরের কাসিমুদ্দিন আহমেদের ছেলে প্রতারক সায়েদুর রহমান দুবাইতে গার্মেন্টস শো’রুম খুলে ব্যবসায় ঋণ হিসেবে প্রবাসী ব্যবসায়ী আবুল কালামের কাছ থেকে ২ লাখ ৬৭ হাজার দিরহাম (৬১ লাখ টাকা) নেয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার জমংখালি গ্রামের মৃত আব্দুল রহমানের ছেলে আবুল কালাম দীর্ঘ ৫০ বছর যাবত দুবাইতে ব্যবসা করে আসছেন। মানিকগঞ্জের প্রতারক সায়েদুর রহমান দুবাইতে সুপ্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী আবুল কালামকে ৮০ হাজার দিরহাম লাভ দেয়ার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে কয়েক দফায় ২ লাখ ৬৭ হাজার দিরহাম নিয়ে গার্মেন্টস ব্যবসা শুরু করে। প্রতারক সায়েদুর রহমান গত ১৭ জানুয়ারি উল্লেখিত অর্থ পরিশোধের জন্য পাওনাদার আবুল কালামকে চারটি চেক প্রদান করে। প্রতারক সায়েদুর রহমান,এসব চেক গত ৭ জুলাই ব্যাংকে জমা দিয়ে উক্ত অর্থ নেয়ার পরামর্শ দিয়ে নিজের দোকানপাট গুটিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। এতে প্রবাসী ব্যবসায়ী আবুল কালাম হতবাক হন।

তিনি প্রতারক সায়েদুর রহমানের কাছ থেকে পাওনা অর্থ উদ্ধার এবং তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে গত সেপ্টেম্বর মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কনস্যুলেট জেনারেল বরাবর এবং প্রবাসী কল্যাণ সচিবের কাছে লিখিত আবেদন পেশ করেন। দুবাই কনস্যুলেট জেনারেলও প্রতারক সায়েদুর রহমানের বিরুদ্ধে কার্যকরী উদ্যোগ নিতেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছে। প্রতারণার শিকার প্রবাসী ব্যবসায়ী গত ২১ অক্টোবর বাংলাদেশে এসে গত ৫ নভেম্বর তার পাওনা টাকা উদ্ধারের জন্য ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালকের কাছে লিখিত আবেদন পেশ করেন।

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের উপ সচিব পরিচালক (প্রশাসন ও উন্নয়ন) গত ৭ নভেম্বর এক চিঠিতে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসককে প্রতারক সায়েদুর রহমানের বিরুদ্ধে আইনগত উদ্যোগ নিতে নিদের্শ দিয়েছেন। প্রবাসী আবুল কালাম কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, মানিকগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে ধরণা দিয়েও প্রতারক সায়েদুর রহমানের কোনো হদিস মিলছে না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
সাইফ ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৫৮ এএম says : 0
কথায় আছেনা অতি লোভে তাতি নষ্ট, দু'লাখ ৬৭ হাজার দিরহাম দিয়ে ৮০ হাজার দিরহাম লাভ (৩০%)???? এতো ব্যাংক এর ছেয়েও অনেক বেশি।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ মোশাররফ ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৪০ এএম says : 0
খুবই মর্মান্তিক ঘটনা। দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হোক।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ কাজী নুর আলম ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৪১ এএম says : 0
সরকারের দৃষ্টি কামনা করছি, ব্যবসায়ীর পাশে দাড়ানো হোক।
Total Reply(0)
মেহেদী ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৪১ এএম says : 0
মানুষকে এভাবে বিশ্বাস করতে নেই।
Total Reply(0)
জন্মভুমি ছাতক ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:৪১ এএম says : 0
আল্লাহ তাকে ধৈর্য ধরার থৌফিক দাও
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন