ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

বাংলাদেশের অর্থনীতি- মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরকে ছাড়াবে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

বাংলাদেশের অর্থনীতি ২০২৪ সালের মধ্যে মালয়েশিয়া, হংকং ও সিঙ্গাপুরকে ছাড়িয়ে বিশ্বের ৩০তম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ হয়ে উঠবে বলে সেন্টার ফর ইকোনমিকস অ্যান্ড বিজনেস রিসার্চের (সিইবিআর) প্রকাশিত এক বৈশ্বিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ২০২০ সালে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক লিগ টেবিলের ৪০তম স্থান থেকে বাংলাদেশের অর্থনীতি ২০২৯ ও ২০৩৪ সালের মধ্যে যথাক্রমে ২৬তম এবং ২৫তম অবস্থানে উঠে আসবে বলে ‘ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক লিগ টেবিল ২০২০’ শীর্ষক এই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। ২০৩৪ সাল পর্যন্ত ১৯৩টি দেশের অর্থনীতির পূর্বাভাস সংবলিত প্রতিবেদনটি সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়।

এদিকে বিভিন্ন সময়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আশাবাদ ব্যক্ত করে বাংলাদেশের ভবিষ্যত লক্ষ্যের কথা জানিয়েছেন। বৈশ্বিক এই প্রতিবেদনে সে বিষয়টিই উঠে এসেছে। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশ ২০৪১ সালে বিশ্বের শীর্ষ ২০ অর্থনীতির দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হবে। তিনি বলেছেন, এখন আমরা ৩০তম, ২০২৮ সালে হব ২৭তম এবং ২০৩০ সালে আমরা বিশ্বের ২৪তম অর্থনীতির দেশ হব। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে ২০৪১ সালে বিশ্বের শীর্ষ ২০ অর্থনীতির দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়া। তখন বাংলাদেশ হবে বিশ্বের উন্নত অর্থনীতির দেশ।

সিইবিআর তাদের প্রতিবেদনে বলছে, ২০১৯ সালে ৫ হাজার ২৮ ডলারের পিপিপি সমন্বিত মাথাপিছু আয় জিডিপি নিয়ে বাংলাদেশ নি¤œ মধ্যম আয়ের দেশ। এতে বলা হয়েছে, গত বছরে ৭ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি নিয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতি দুর্দান্ত করেছে। ২০১৮ সালে দেশটি ৭ দশমিক ৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছিল।

২০১৪ সাল থেকে দেশের জনসংখ্যা প্রতি বছর এক শতাংশ হারে বাড়ছে। এর মানে হলো সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মাথাপিছু আয় যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। জিডিপির অংশ হিসাবে সরকারি ঋণ গত বছর বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ৩৪ দশমিক ৬ শতাংশে, যা ২০১৮ সালে ছিল ৩৪ শতাংশে।
ঋণ বাড়া সত্ত্বেও, সরকারি আর্থিক খাত ভালো অবস্থানে রয়েছে। অপেক্ষাকৃত কম ঋণের বোঝা ২০১৯ সালে সরকারকে ৪ দশমিক ৮ শতাংশ ঘাটতি বাজেট দিতে সহায়ক হয়েছিল। প্রতিবেদনে বলা হয়, জিডিপি প্রবৃদ্ধির বার্ষিক হার ২০২০ থেকে ২০২৫ সালের মধ্যে গড়ে ৭ দশমিক ৩ শতাংশে নেমে আসতে পারে।

সিইবিআর ভবিষ্যদ্বাণী করেছে, পরবর্তী ৯ বছরে অর্থনীতি বৃদ্ধির এ হার বজায় থাকলে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক লিগ তালিকায় ২০২০ সালের ৪০তম স্থান থেকে বাংলাদেশ ২০৩৪ সালের মধ্যে ২৫তম স্থানে উঠে আসবে। প্রযুক্তির বর্ধিত প্রবৃদ্ধির কারণে যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে ২০৩৩ সালে চীন বিশ্বের বৃহত্তম অর্থনীতিতে পরিণত হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে সংস্থাটি। অন্যদিকে, ভারত ২০২৬ সালে জার্মানিকে ছাড়িয়ে বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম অর্থনীতিতে পরিণত হবে এবং ২০৩৪ সালে জাপানকে পেছনে ফেলে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতিতে পরিণত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন