ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অভয়নগরে গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে তিনজন নিহত

একজন আটক, গরুসহ পিকআপ উদ্ধার

যশোর ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

যশোরের অভয়নগরে গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে তিনজন নিহত হয়েছেন। আটক হয়েছে একজন। উদ্ধার হয়েছে গরুসহ পিকআপ। ঘটনাটি ঘটে গতকাল ভোররাতে অভয়নগর উপজেলার প্রেমবাগ ইউনিয়নের প্রেমবাগ গ্রামে। আটক জনি শেখ বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট কাটাখালী গ্রামের ওহাব শেখের ছেলে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন যশোর জেলা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন।

আমাদের অভয়নগর উপজেলা সংবাদদাতা এলাকাবাসী ও পুলিশের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, একদল চোর পিকআপ নিয়ে প্রেমবাগের পার্শ্ববর্তী যশোর সদর উপজেলার গাইদগাছি গ্রামে গরু চুরি করতে যায়। চোরেরা ওই গ্রামের খোরশেদ আলীর বাড়ি থেকে ৩টি গরু নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় বাড়ির লোকজন চিৎকার দিলে গ্রামবাসী তাদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে মসজিদের মাইকেও গরু চুরির বিষয়টি জানিয়ে গ্রামবাসীকে আহŸান করা হয়।

গ্রামবাসীর সংঘবদ্ধ ধাওয়ার মুখে প্রেমবাগ গ্রামের মজুমদার পাড়ার রেলক্রসিংয়ে চার গরুচোর ধরা পড়ে। গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলেই দুই চোর নিহত হয়। আরেকজনকে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া একজনকে আহত অবস্থায় আটক করা হয়েছে। আটক জনি শেখকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

প্রেমবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দিন জানান, গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে দু’জন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। মুমুর্ষূ একজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যায়। আর গণপিটুনিতে আহত জনি শেখ নামের অপর এক চোরকে পুলিশ আটক করেছে।
অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম জানান, আটক জনি শেখ স্বীকার করেছে, তারা গাইদগাছী গ্রাম থেকে পিকআপে করে কয়েকটি গরু চুরি করে পালিয়ে অভয়নগরের প্রেমবাগে চলে আসে। কিন্তু সেখানে গ্রামবাসী তাদেরকে ঘিরে ফেলে এবং গণপিটুনি দিতে শুরু করে। আটক চোর জনির মাধ্যমে পুলিশ জানতে পারে নিহতদের বাড়িও বাগেরহাট জেলায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন