ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬, ০১ রজব ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

তাবিথের পোস্টার লাগিয়ে দেয়ার প্রস্তাব আতিকের

হেল্প লাইনে ২৪ ঘণ্টা নাগরিক সেবার আশ্বাস তাপসের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পোস্টার কেউ ছিঁড়বে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, আমি বা আমাদের নেতারা যদি বলতো পোস্টার ছিঁড়তে, তাহলে তাবিথ আউয়ালের একটি পোস্টারও থাকতো না। আপনার (তাবিথ আউয়াল) পোস্টার দিন, লাগিয়ে দেবো। একটা পোস্টারও কেউ ছিঁড়বে না।

গতকাল রাজধানীর মিরপুর ১২ নম্বরে নির্বাচনি প্রচারণা শুরুর সময় আতিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন। এরআগে তাবিথ আউয়াল বিভিন্ন স্থানে লাগানো তার পোস্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ করেছিলেন। ঢাকা-১৬ আসনের অন্তর্ভুক্ত উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আলুব্দি ঈদগাহ মাঠ থেকে শুরু করে মিরপুর ১২, সেকশন ১১, পলাশ নগর, সেকশন ১০, পল্লবী, মিল্ক ভিটা, রূপনগর এলাকায় গণসংযোগ-প্রচার চালিয়েছেন আতিকুল ইসলাম।

প্রচার-গণসংযোগে ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী সালাউদ্দিন রবীন, ৬, ৭ ও ৮ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী শিখা চক্রবর্তী, আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহর ভাই এখলাস উদ্দিন মোল্লা ও তার সন্তানদের গাড়িবহর অংশ নিতে দেখা যায়। আতিকুল ইসলাম বলেন, আপনারাই দেখুন পুরো ঢাকায় তাবিথ আউয়ালের পোস্টার ছেয়ে গেছে। আমি আপনাকে স্বাগত জানাই, আপনাকে বলছি, আপনার পোস্টার দিন, আমি লাগিয়ে দেবো। কেউ একটি পোস্টারও ছিঁড়বে না। আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রের রাজনীতি করে। অভিযোগ না করে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকেন, ৩০ জানুয়ারি দেখা যাবে, নৌকা বিজয়ী হবেই। সরস্বতী পূজা উপলক্ষে নির্বাচন পেছানোর দাবির সঙ্গে একমত পোষণ করে আতিক বলেন, আমি নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলছি, যদি সম্ভব হয় অবশ্যই নির্বাচন পেছানো হোক। সরস্বতী পূজার কথা মাথায় রেখে অবশ্যই এটা পেছানোর দাবি করছি। আমাদের খেয়াল রাখতে হবে ধর্ম পালনে কারও যেন কোনও বিঘœ না ঘটে।

বস্তিবাসীদের পুনর্বাসনের জন্য পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বস্তিবাসীও আমাদের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তাদের জন্য বিভিন্ন ধরনের ফ্ল্যাট তৈরি করে দেওয়া হবে। আমরা কাজগুলো হাতে নিয়েছি। আমরা মনে করি পুনর্বাসন ছাড়া কোনও উচ্ছেদ করা যাবে না। এটার আইনি দিক আমরা দেখবো। বস্তিতে যে কয়দিন থাকুক না কেন, তাকে ওই কয়দিনের ভাড়া দেওয়ার ব্যবস্থা আমরা করবো। এরকম একটা ডিজাইন তৈরি করেছি আমরা। কিন্তু ৯ মাসে সবকিছু বাস্তবায়ন করা সম্ভব না। অনেক কিছু আমরা প্ল্যান করে ফেলেছি।

নগর ভবন খোলা থাকবে ২৪ ঘণ্টা: তাপস
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে জয়ী হলে নগরবাসীর জন্য হেল্প লাইন চালু করবেন বলে প্রতিশ্রæতি দিয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেন, এই হেল্প লাইনের মাধ্যমে ঢাকাবাসী তাদের যেকোনও সমস্যা ও অভিযোগ জানাতে পারবে। নগর ভবন ২৪ ঘণ্টা ঢাকাবাসীর সেবায় খোলা থাকবে। গতকাল নির্বাচনি প্রচারণার সময় আজিমপুর এলাকায় এক পথসভায় তিনি এই প্রতিশ্রæতি দেন।

তাপস বলেন, আমাদের হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য কীভাবে পুনরুদ্ধার করে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতে পারি, সেটাই আমার মূল লক্ষ্য। আমরা আরও কিছু বিষয় নিয়ে এসেছি। আমি নির্বাচিত হলে মেয়র হিসেবে নয়, সেবক হিসেবে ঢাকাবাসীর জন্য কাজ করবো। তিনি আরও বলেন, আমরা হেল্প লাইন চালু করবো। নাগরিকদের সমস্যার সমাধান না হলে সেখান থেকে তারা সরাসরি মেয়রের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবে। সেখানে মেয়র ব্যবস্থা নেবেন। এভাবে আমরা সারাদিন ঢাকাবাসীর সেবা নিশ্চিত করবো।

আওয়ামী লীগের এই প্রার্থী বলেন, আমাদের ঢাকার ঐতিহ্য, সুন্দর ঢাকা ও স্বশাসিত ঢাকা নিশ্চিত করবো। প্রতিদিন মশকনিধন ও সবুজায়ন করবো। এজন্য করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিয়োজিত থাকবেন বলেও তিনি জানান।

যুবলীগের গণসংযোগ
আজ ১৬ জানুয়ারী, ২০২০ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল এর নেতৃত্বে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম এর সমর্থনে মিরপুর-১০ ফলপট্টি এলাকায় ৯৪নং ওয়ার্ডের বিভিন্নস্থানে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগ সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব আসাদুল হক আসাদ, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য রফিকুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইসমাইল হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা সামছুল ইসলাম পাটোয়ারী।

এছাড়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এর সমর্থনে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ এর স্ত্রী অ্যাড. নাহিদা সুলতানা যুথী সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবিদের নিয়ে গতকাল সূত্রাপুর, কোতয়ালীর বিভিন্নস্থানে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

ইসলামপুর ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে সমিতির কার্যালয়ে সভাপতি সামছুল আলম ফজল এর সভাপতিত্বে ও নেছার আহম্মেদ মোল্লার পরিচালনায় মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- অ্যাড. নাহিদা সুলতানা যুথী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অ্যাড. বেলাল হোসাইন, সদস্য সচিব অ্যাড. মামুন-অর-রশিদ, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য ইমরান হোসেন খান, কেন্দ্রীয় নেতা মহিউদ্দিন খোকা, বিপুল ঘোষ শংকর প্রমুখ।

এছাড়াও কামরাঙ্গীর চর এলাকায় শাহজাহান ভুইয়া মাখন ও আ.ক.ম গিয়াস উদ্দিন এর নেতৃত্বে, শ্যামপুর-কদমতলীতে বিশ^াস মতিউর রহমান ও মোঃ ইসলাম এর নেতেৃত্বে, যাত্রাবাড়ী-ডেমরাতে বদিউল আলম ও এনামুল হক খান এর নেতৃত্বে, কোতয়ালী, সুত্রাপুর, ওয়ারী, গেন্ডারিয়া, বংশালে এমরান হোসেন খান ও অধ্যক্ষ নবী নেওয়াজ এর নেতেৃত্বে, লালবাগ, চকবাজার, বংশাল, কোতয়ালীতে মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম ও সাজ্জাদ হোসেন শাহীন ধানমন্ডি, হাজারীবাগ, কলাবাগান ও নিউ মার্কেট এ মঞ্জুর আলম শাহীন ও আবু আহম্মেদ নাসিম পাভেল নেতৃত্বে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেন।

এছাড়াও যুবলীগ সাবেক উপ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক জাকিয়া সুলতানা শেফালী’র নেতৃত্বে মহিলা টিম নিউমার্কেট, যাদুঘর, আজিজ সুপার মার্কেট, নিলক্ষেত, কাটাবন, যুবলীগ সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মৃনাল কান্তি জোয়ার্দ্দার এর নেতৃত্বে পল্টন ও মতিঝিল এলাকায়, যুবলীগ সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. হেলাল উদ্দিন এর নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে বিভিন্নস্থানে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে ভোট ও দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপসের পক্ষে ভোট চেয়ে রাজধানীর ডেমরা বাজারে গণসংযোগ করেছে ডেমরা থানা আওয়ামী লীগ। এ গণসংযোগে নেতৃত্ব দেন ডেমরা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মোল্লা সজল। এদিন সকাল থেকে বিকালে ও সন্ধ্যা পর্যন্ত কোনাপাড়া, ডগাইর, বাশেরপুল, বড় ভাঙ্গা, হাজী পাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় জনসংযোগ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডেমরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমান হাবু, ৬৯ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাসু, সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার, বৃহত্তর ডেমরা থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কৌশিক আহমেদ জসিমসহ আরো অনেকে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Md Masud Hawlader ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১:২৮ এএম says : 0
এখন জদি কেউ বলে বেড রুমের মশারী টানিয়ে দিতে তাও দিবা কিন্তু ভোট সেস হয়ে গেলে পাবলিক কে বলবা তুমি কেডা আর ঢাকায় জদি টানা দু ঘন্টা বৃষ্টি হয় তাহলে তো তোমাদের সেবার উন্নয়ন এর জোয়ারে মানুষ তো দুরের কথা গাড়ি ও ভেসে জায়
Total Reply(0)
জোহেব শাহরিয়ার ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১:২৮ এএম says : 0
ভোটের আগে এমন কত প্রতিশ্রুতি দিবো, ভোট গেলেই স্মৃতি লোপ পাবে!!!
Total Reply(0)
কাজী হাফিজ ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১:২৯ এএম says : 0
আতিক লোকটারে একেবারে সুবিধার মনে হয় না। কেমন জানি উলটো পালটা কথা বলে।
Total Reply(0)
ব্যাচেলর ছারপোকা ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১:৩০ এএম says : 0
ভোটটা বেরুক, সব ভুলে যাবে
Total Reply(0)
Nadim ahmed ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫০ পিএম says : 0
What a show of power by Atiq!
Total Reply(0)
zubayer khan ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ৭:৫২ এএম says : 0
সব বাটপার।
Total Reply(0)
Nadim ahmed ১৭ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:৫৩ পিএম says : 0
What a show of power by Atiq! If you do Awami League, you are bou d to show power of your muscle, that is the only pre-qualification to be a Awami League.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন