ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

এবার আইএমএফের বিরুদ্ধে ক্ষেপবেন মন্ত্রীরা : চিদাম্বরম

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

ভারতের অর্থনীতির মন্দা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করায় এ বার আন্তর্জাতিক অর্থ ভান্ডার (আইএমএফ) ও সংস্থার মুখ্য অর্থনীতিবিদ গীতা গোপীনাথের বিরুদ্ধে তোপ দাগবেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম মঙ্গলবার টুইটে তার এই অনুমানের কথা জানিয়েছেন। চিদাম্বরম লিখেছেন, ‘‘নোটবন্দির সিদ্ধান্তের প্রথম যাঁরা কড়া সমালোচনা করেছিলেন, আইএমএফ-এর মুখ্য অর্থনীতিবিদ গীতা গোপীনাথ তাঁদের অন্যতম। মনে হচ্ছে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা এ বার আইএমএফ এবং গোপীনাথের বিরুদ্ধে তোপ দাগবেন। তার জন্য আমাদের তৈরি থাকতে হবে।’’ আইএমএফ সোমবার ভারতের জিডিপি বৃদ্ধির সম্ভাব্য হারের রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। সুইৎজারল্যান্ডের দাভোসে, ‘ওয়ার্ন্ড ইকনমিক আউটলুক’-এ। সেখানে বলা হয়েছে, চলতি বছরে ভারতের জিডিপি বৃদ্ধির হার কমে হবে ৪.৮ শতাংশ। যা মাসতিনেক আগে আইএমএফ-এর দেওয়া হিসাবের চেয়ে ১.৩ শতাংশ কম। গোপীনাথ এও জানিয়েছেন, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি)-র বিরুদ্ধে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে যে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ হচ্ছে জিডিপি বৃদ্ধির হারে তার কতটা প্রভাব পড়ছে, তার উপরেও নজর রাখা হচ্ছে। তার ভিত্তিতে আগামী এপ্রিলে পরবর্তী রিপোর্ট প্রকাশ করা হবে। শুধু তাই নয়, ওয়ার্ন্ড ইকনমিক আউটলুকে ভারতের প্রসঙ্গে আইএমএফ এও বলেছে, ‘‘পণ্যের অভ্যন্তরীণ বাজার যতটা কমবে বলে অনুমান করা হয়েছিল, তার চেয়ে অনেক বেশি কমেছে। সেটা কমেছে অনেক দ্রæত হারে। যা হয়েছে নন-ব্যাঙ্কিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির উপর উত্তরোত্তর চাপ বাড়ায়। আর ঋণ দেওয়ার পরিমাণ ক্রমশ কমে যাওয়ায়।’’ কংগ্রেস নেতা চিদম্বরম মনে করছেন, আইএমএফ যে সংশোধিত হিসাব প্রকাশ করেছে দাভোসে, ভারতের জিডিপি বৃদ্ধির হার তার চেয়েও কমবে। নেমে যাবে ৫ শতাংশের অনেকটা নীচে। এবিপি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন