ঢাকা, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৪ ফাল্গুন ১৪২৬, ২২ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

রাকিবুলের হ্যাটট্রিক রাঙানো জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

২০১০ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে হ্যাটট্রিক দিয়ে এসেছিলেন আলোয়। যুব বিশ্বকাপে প্রথম বাংলাদেশির করা সেই হ্যাটট্রিক দিয়ে এখন জাতীয় দলে কামরুল ইসলাম রাব্বি। এক দশক পর এবার এক স্পিনারের হ্যাটট্রিকে উদ্ভাসিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ। বাম হাতি ঘূর্ণির নতুন জাদুক রাকিবুল হাসানের এমন কীর্তিতে মোড়ানো এক জয় দিয়ে সুপার লিগের পথে আরেক ধাপ এগুলো বাংলাদেশ যুব দল। গতাকাল পচেফস্ট্রুমে স্কটল্যান্ড অন‚র্ধ্ব-১৯ দলকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে আকবর আলীর দল। ৯০ রানের লক্ষ্য পেরিয়ে গেছে ২০০ বল বাকি থাকতে।

উইটর‌্যান্ড ক্রিকেট ফিল্ডে গ্রæপ ‘সি’র ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শরিফুল ইসলাম ও তানজিম হাসানের দাপুটে বোলিংয়ে চাপে পড়ে যায় স্কটল্যান্ড। অষ্টম ওভারে ২১ রানের মধ্যে ফিরে যায় দলটির প্রথম চার ব্যাটসম্যান। মিডল অর্ডারে খানিকটা প্রতিরোধ গড়েন উজাইর শাহ। পরের ব্যাটসম্যানদের টিকতে দেননি রকিবুল। নিজের চতুর্থ ওভারে শিকার শুরু করেন কেস সাজ্জাদকে বোল্ড করে। পরের বলে এলবিডবিøউর ফাঁদে ফেলেন লিলি রবার্টসনকে। চার্লি পিটকে বোল্ড করে বাংলাদেশের তৃতীয় বোলার হিসেবে যুব ওয়ানডেতে হ্যাটট্রিক করেন রকিবুল। পরে জেমি কেয়ার্নসকে থামিয়ে ৩০ ওভার ৩ বলে গুটিয়ে দেন স্কটল্যান্ডের ইনিংস।

রান তাড়ায় শুরুতেই হোঁচট খায় বাংলাদেশ। শন ফিশার-কিওফের প্রথম বলে কট বিহাইন্ড হন তানজিদ হাসান। দুই বাউন্ডারিতে দুই অঙ্ক ছুঁয়ে ফিশার-কিওফের বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান শামীম হোসেন। অন্য প্রান্তে দ্রæত রান তোলার চেষ্টায় ছিলেন পারভেজ হোসেন। ১৫ বলে দুটি করে ছক্কা ও চারে ২৫ রান করে ফিশার-কিওফের বলে ক্যাচ দেন এই ওপেনার। তৌহিদ হৃদয়কে নিয়ে বাকিটা সারেন মাহমুদুল হাসান। ৪৮ বলে চার বাউন্ডারিতে ৩৫ রান করেন তিনি। হৃদয় সাবধানী ব্যাটিংয়ে করেন ১৭ রান।

৪ পয়েন্ট নিয়ে ‘সি’ গ্রæপের শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। আগের ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৯ উইকেটে উড়িয়ে অন‚র্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের এবারের আসরে শুভ স‚চনা করে টাইগার যুবারা। গ্রæপ পর্বে নিজেদের সবশেষ ম্যাচে আগামী শুক্রবার পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে তারা।

স্কটল্যান্ড : ৩০.৩ ওভারে ৮৯ (গাই ১১, উজাইর ২৮, ডি কেয়ার্নস ৭, সাজ্জাদ ৭, জেমি কেয়ার্নস ১৭; শরিফুল ২/১৩, তানজিম ২/২৬, শমীম ১/১৫, মৃত্যুঞ্জয় ১/৮, রকিবুল ৪/২০)। বাংলাদেশ : ১৬.৩ ওভারে ৯১/৩ (পারভেজ ২৫, শামীম ১০, হৃদয় ১৭*, মাহমুদুল ৩৫*; ফিশার ৩/২৭, পিট ০/২৮, সাজ্জাদ ০/১২, কেয়ার্নস ০/১২, রবার্টসন ০/১২)। ফল : বাংলাদেশ ৭ উইকেটে জয়ী। ম্যাচসেরা : রাকিবুল হাসান (বাংলাদেশ)।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন