ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬, ৩০ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

চুড়ার স্বপ্নে বিভোর রুট

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

ইংল্যান্ড টেস্ট দলের অধিনায়ক জো রুটের নেতৃত্বে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তৃতীয টেস্ট ইনিংস ও ৫৩ রানের ব্যবধানে জেতে দলটি। এখন এই ইংলিশ দলপতির লক্ষ্য টেস্টে এক নম্বর অবস্থানে যাওয়া। ২০১১ সালের জানুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যান্ড্রু স্ট্রসের নেতৃত্বে সিডনিতে ইনিংস ব্যবধানে জিতেছিল ইংল্যান্ড। সে বছরের শেষে দলটিও উঠে যায় আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে। সেই জয়ের পর কেটে গেছে অর্ধযুগেরও বেশি সময়। তারপর পোর্ট এলিজাবেথে আবারও বিদেশের মাটিতে ইনিংস ব্যবধানে জয়ের স্বাদ পেল জো রুটের দল।

এই দলটির কাছে এই মুহুর্তে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ জোহানর্সবাগ টেস্ট জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করা। সিরিজের চতুর্থ ম্যাচটি জিতলে গত চার বছরের মধ্যে বিদেশের মাটিতে প্রথম টেস্ট সিরিজ জেতার গৌরব অর্জণ করবে মাইকেল ভন-অ্যান্ড্রু স্ট্রসের উত্তরসূরীরা।

যাইহোক সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ড দলের সফলতা, কেপ টাউনে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ানো জয়ে দলটি সঠিক রাস্তায় হাঁটছে, তা বলা যায়। তবে র‌্যাঙ্কিয়ের শীর্ষ দলে পরিণত হওয়ার ইচ্ছা আছে ইংলিশ দলপতির। তবে তিনি জানেন খুব দ্রæতই তা সম্ভব নয়, ‘আমরা যেভাবে এগিয়ে চলছি। তা পরিকল্পনামাফিক এবং ভালো। কিন্তু এক নম্বর দল হওয়াটা রাতারাতি হওয়া সম্ভব নয়। এভাবে ভালো খেলে যেতে হবে। সফলতা অর্জণ করতে হবে। যত বেশি পরিশ্রম করব, ততই শিখব। প্রতিটি ম্যাচেই নিজেদের সর্বোচ্চটা উজাড় করে দিতে পারলে এই কঠিন কাজটিও সম্ভব।’
নিজেদের মধ্যে একতার কথা তুলে ধরেছেন এই ব্রিটিশ। জয় পাওয়ার নেপথ্য রহস্যটাও জানালেন তিনি, ‘আমরা কেপ টাউন টেস্টে এক মুহুর্তের জন্যও হাল ছেড়ে দেই নি। প্রত্যেকেই বিশ্বাসী ছিল। একজন আরেকজনের অনুপ্রেরণার উৎস হযেছে। সবশেষে জয় আমাদের কাছে ধরা দিয়েছে।’

দলে বর্তমানে যে পরিবর্তনটি তিনি দেখখেন, তাকে মনে করছেন ইতিবাচ হিসেবে। শীর্ষে পৌঁছতে গেলে এই ধারা অব্যহত রাখার কথা জানালেন তিনি, ‘এই রকম একটি পরিবর্তনের ধারা দলে প্রয়োজন। ধারাবাহিকভাবে এই ধারা অব্যহত রাখতে পারলে এক নম্বরে পৌঁছা সম্ভব।’
ইংল্যান্ড দল বর্তমানে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের চার নম্বর দল। এই দলের আগে নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের অবস্থান। ওয়ান্ডার্সে সিরিজের চতুর্থ টেস্ট ম্যাচটিতে জয় আসলে ইংল্যান্ড উঠে আসবে তিন নম্বরে। বর্তমানে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেও ইংল্যান্ড পয়েন্ট টেবিলে তিনেই আছে। চলতি বছরে শ্রীলঙ্কা, উইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে জিততে পারলে পয়েন্ট টেবিলে ইংল্যান্ডের অবস্থান আরও সুসংহত হবে। যদি তারা ২০২১ সালের গ্রীষ্মকালের আগ পর্যন্ত প্রথম দুটি দলের মধ্যে থাকতে পারে, লর্ডসে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলার সুযোগ পাবে।
গত দেড়-দই বছর ধরে দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলছে ইংল্যান্ড। তারপরও অধিনায়ক দেখছেন কিছু ঘাটতি, ‘ক্রিকেটে এখনও অনেককিছু আছে, সে জায়গায় আমাদের উন্নতি করতে হবে। আমরা সেসব বিষয়ে মনযোগ দিচ্ছি। যদি নিজেদের ঘাটতি পূরণ করতে পারি, ফলাফল ইতিবাচক হবে। আমি নিশ্চিত।’

সম্প্রতি বাজে প্রতিক্রিয়া প্রদর্শনের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার কাগিসো রাবাদাকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। যার বিরুদ্ধে করেছিলেন সেই রুট এ প্রসঙ্গে বলেলেন, ‘সে আমার খুব কাছে চলে এসেছিল। তাতে নিষিদ্ধ হওয়ার রায় এসেছে। এই ঔদ্ব্যত্য আচরণে আমার কোন সমস্যা হয়নি। আমি যে ধৈর্য্যধারণ করতে পেরেছি, তাতেই খুশি।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন