ঢাকা, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৯ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

একাদশ সাজাতেই হিমশিম!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

মুজিববর্ষের প্রথম ক্রীড়া আসর বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আফ্রিকান শক্তি বুরুন্ডি। আগামীকাল শেষ চারের গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচটির আগে বেশ চাপে রয়েছে লাল-সবুজরা। বলতে গেলে সেমিফাইনালের একাদশ সাজাতেই হিমশিম খাচ্ছেন বাংলাদেশ কোচ জেমি ডে!

খেলোয়াড়দের ইনজুরি, অসুস্থতা এবং কার্ড তাকে ভাবিয়ে তুলেছে। ইনজুরি কারণেই টুর্নামেন্ট শুরুর আগে দল থেকে ছিটকে পড়েন টুটুল হোসেন বাদশা। মারত্মক অসুস্থ থাকায় দেশসেরা ফরোয়ার্ড নাবীব নেওয়াজ জীবন দলেই থাকতে পারেননি। টুর্নামেন্টের মাঝপথে গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল ও অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া পড়েন ইনজুরিতে। আর গ্রæপ পর্বের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিডফিল্ডার সোহেল রানার ইনজুরির পাশাপাশি ওই ম্যাচের অধিনায়ক ডিফেন্ডার তপু বর্মণ পান লাল কার্ড। ফলে সেমিফাইনালের আগে সব মিলিয়ে একটা হ-য-ব-র-ল অবস্থা বাংলাদেশ দলের।

তারপরও ভালো খবর হচ্ছে- শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে না খেললেও সেমিফাইনালে খেলছেন জামাল ভূঁইয়া। চোট কাটিয়ে গতকাল অনুশীলনে নামেন তিনি। তবে বুরুন্ডির বিপক্ষে সোহেল থাকছেন কিনা তা নিশ্চিত না হলেও লাল কার্ডের শাস্তিতে তপু বর্মণ যে খেলতে পারবেন না তা সবাই জানেন। তাই সব কিছু বাদ দিয়ে এখন রক্ষণ নিয়েই ভাবতে হচ্ছে জেমিকে। তাছাড়া জামাল ভূঁইয়াকে ছাড়া মানিক হোসেন মোল্লার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা। তাই কাকে রেখে কাকে বাদ দেবেন সেটা ভেবেই অস্থির কোচ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪-৩-৩ পদ্ধতিতে খেলা ম্যাচে তপু বর্মণের সঙ্গে রক্ষনের দায়িত্ব সামলেছেন বিশ^নাথ ঘোষ, রিয়াদুল হাসান রাফি ও রহমত মিয়া। অভিষিক্ত মিডফিল্ডার মানিক হোসেন মোল্লা প্রয়োজনের সময় নিচে নেমে খেলেছিলেন। লাল কার্ডের কারণে এখন তপুও নেই। তার জায়গায় খেলার সম্ভাবনা রয়েছে অভিজ্ঞ রায়হান হাসানের। কোচও হয়তো রায়হানকেই চিন্তা করে রেখেছেন। মিডফিল্ডার জামাল ফেরাতে কাকে বাদ দিবেন জেমি? এটা নিয়েই যত চিন্তা। জামালের পজিশনে খেলা মানিক প্রথম ম্যাচেই অসাধারণ খেলে কোচের মন জয় করে নিয়েছেন। এখন তাকেও বসাতে চাচ্ছেন না জেমি। তবে উরুর চোট সেরে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব মাঠে কাল পুরোদমে অনুশীলন করেন জামাল ভূঁইয়া। সেমিতে খেলার ব্যাপারে বেশ আত্মবিশ্বাসী তিনি, ‘আমি এখন সুস্থ। আশা করি সেমিফাইনালে খেলতে পারব। আমরা দেখেছি বুরুন্ডির ফরোয়ার্ডরা অনেক ভাল। তাদের অধিনায়ক এনশিমিরিমানা জিসপিন চার গোল করেছেন। তাছাড়া শারীরিকভাবে তারা আমাদের চেয়ে অনেক শক্তিশালী। তপু নেই, তাই এখন ডিফেন্স কীভাবে সাজাবেন, সেটা কোচই ভাল জানেন। তবে আমাদের দলে রায়হান আর মানিক আছে। কোচ সিদ্ধান্ত নিবেন কাকে খেলাবেন।’

জাতীয় দলে নিয়মিত হওয়ার পর খুব বেশি ম্যাচ মিস করেননি জামাল। চোটের কারণে ২০১৮ সালের ২৯ আগষ্ট নীলফামারীতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রীতি ফুটবল ম্যাচে খেলতে পারেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক। এবার একই দলের বিপক্ষে উরুর চোটে মাঠে নামতে পারেননি। শেষ চারে বুরুন্ডির বিপক্ষে গোল করতে চান বাংলাদেশ দলের মধ্যমাঠের এই কান্ডারি, ‘আমরা গোল হজম করতে চাই না। জয়ের সামর্থ্য রয়েছে আমাদের। আমি ব্যক্তিগতভাবে গোল করতে চাই।’

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন