ঢাকা, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৯ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যতই প্রতিবাদ হোক, সিএএ প্রত্যাহার হবে না : অমিত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জানুয়ারি, ২০২০, ১২:০২ এএম

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে প্রতিবাদ আন্দোলনের মধ্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সাফ জানিয়ে দিলেন, সিএএ নিয়ে যতই প্রতিবাদ হোক না কেন প্রত্যাহার করা হবে না। মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লক্ষনৌতে এক সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময় তিনি ওই মন্তব্য করেন। অমিত শাহ বলেন, লক্ষনৌয়ের মাটি থেকে অত্যন্ত জোরের সঙ্গে বলতে এসেছি যাদের বিরোধিতা করার করুন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাহার করা হবে না। বিরোধীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, বিরোধীরা বুঝতে পারছেন না, কারণ তাদের চোখে ভোট রাজনীতির চশমা পরা আছে। বিরোধী নেতা-নেত্রীদের উদ্দেশ্যে অমিত শাহ কটাক্ষ করে বলেন, দেশ ও দুনিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় নেতা নরেন্দ্র মোদি ‘সিএএ’ এনেছেন। আর এর বিরুদ্ধে রাহুল বাবা অ্যান্ড কোম্পানি, মমতা, অখিলেশ, বহেন মায়াবতী, কমিউনিস্টসহ সব ব্রিগেড কাউ-কাউ-কাউ করে চলেছেন। আমি মমতা, অখিলেশ, রাহুলকে চ্যালেঞ্জ করেছি হিম্মত থাকলে খোলা মঞ্চে আসুন। দেখিয়ে দিন ‘সিএএ’-এর কোন জায়গায় সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেয়া হবে না বলা হয়েছে। অমিত শাহ বিরোধীদের উদ্দেশ্যে বলেন, তারা দেশের কোনও কাজ হলেই বিরোধিতা করে। এমনকি যখন সেনাবাহিনী সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছিল, এয়ারস্ট্রাইক করেছিল তখনও মমতা-মায়াবতী-রাহুল-অখিলেশরা বিরোধিতা করেছে। ভারতে সংশোধিত নতুন নাগরিকত্ব আইন সংসদে পাস হওয়ার পর সবচেয়ে বেশি অগ্নিগর্ভ প্রতিবাদ-আন্দোলন হয়েছিল লক্ষনৌয়ে। ব্যাপক ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগে উত্তাল হয়ে উঠেছিল উত্তরপ্রদেশের রাজধানী শহর। পুলিশের বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগও উঠেছিল। বিক্ষোভ-আন্দোলনের সময় উত্তরপ্রদেশে ১৯ জনের মৃত্যু হয়। দিল্লির শাহীনবাগের ধাঁচে উত্তরপ্রদেশের লক্ষনৌয়ের ঘণ্টাঘর-এর কাছে এখনও অবস্থান-বিক্ষোভে শামিল রয়েছেন নারী ও শিশুরা। পিটিআই, এনডিটিভি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন