ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মহামারি করোনা ভাইরাস : মূল উৎস সাপ!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ২:০১ পিএম

পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ। এই পরিস্থিতিতে জরুরি বৈঠকও করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা'র বিশেষ ক্ষমতাপ্রাপ্ত বিশেষজ্ঞদের একটি কমিটি। চীনা ভাইরাসের ভয়াবহ বিস্তারে বিশ্বে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা জারির মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে কিনা, সে বিষয়েও শীঘ্রই সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। উল্লেখ্য, গত দশকে মাত্র পাঁচবার বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা জরুরি মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল।
আন্তর্জাতিক মহলে উদ্বেগ বাড়িয়ে চীনের বাইরে ক্রমশ ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাস। এর আগে চীনের বাইরে থাইল্যান্ড ও জাপানে তিন জনের সংক্রমণের খবর মিলেছিল। এখন সুদূর মার্কিন মুলুকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন এক ভারতীয় মহিলাও। পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হয়ে উঠছে। এই পরিস্থিতিতে সামনে এসেছে আশ্চর্যজনক এক তথ্য। চীনের দুই প্রজাতির সাপ থেকেই করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের প্রতিবেদন অনুযায়ী, চীনে রহস্যজনকভাবে করোনা ছড়িয়ে পড়ার মূল উৎসই হচ্ছে বিষধর চীনা ক্রেইট এবং কোবরা সাপ। করোনাভাইরাস বাতাসে মিসে প্রাথমিকভাবে ন্তন্যপায়ী প্রাণী এবং পাখির শ্বাসযন্ত্রে সংক্রামণ করে। এর ফলে প্রাথমিকভাবে জ্বর, সর্দি, শ্বাসকষ্ট উপসর্গ হিসেবে দেখা দেয়।
চীনে করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় নববর্ষ উদযাপন বাতিল করেছে দেশটির সরকার। চীনের উহানের পর হুয়াংগ্যাংয়ে সতর্কতা জারি করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমের উদ্ধৃতি দিয়ে এ খবর নিশ্চিত করেছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স।
এর আগে ২০১৯ সালে চীনের হুয়ান শহরে প্রথম করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি হয়। যা খুবই দ্রæত ছড়িয়ে পড়ে। এ শহর থেকে ভ্রমণ করা যাত্রীদের থেকে অন্যদের মাঝেও ভাইরাসটি ছড়িয়ে যায়। চীন, যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশকিছু দেশে করোনা ছড়ায়।
চীনে নববর্ষ উদযাপন বাতিল
এদিকে চীনে করোনা ভাইরাস মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় নববর্ষ উদযাপন বাতিল করেছে দেশটির সরকার। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে খবর প্রকাশ করেছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম।
এদিকে চীনের উহান শহরে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সকল ধরনের গণপরিবহন বন্ধ করে দিয়েছে চীনা কর্তৃপক্ষ। এছাড়া শহরটিতে বসবাসরত সব জনগণকে বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করেছে এবং জনসমাগম এলাকা এড়িয়ে চলতে বলা হয়েছে।
এখন পর্যন্ত ভাইরাসটি দ্বারা ৬০০ জনের বেশি আক্রান্ত হয়েছে এবং ১৭জন মারা গেছে বলে স্বীকার করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ। তবে বেসরকারি হিসেবে আক্রান্তের পরিমাণ কয়েকগুণ।
চীনের উহান থেকে উৎপন্ন এই ভাইরাস নতুন করে ছড়িয়ে পড়ছে বিশ্বব্যাপী। চীনের অন্যান্য প্রদেশ ছাড়াও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ কোরিয়া ও থাইল্যান্ডের পর যুক্তরাজ্যেও একজন আক্রান্তকে শনাক্ত করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, চীনের উহান শহরেই গত ডিসেম্বর করোনা ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। ধারণা করা হয় সেখানকার একটি বাজার যেখানে অবৈধভাবে বন্যপ্রাণী বিক্রি হয় সেখান থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়েছে। ভাইরাসটির কারণে চীন এখন সংকটপূর্ণ পর্যায়ে রয়েছে বলে স্বীকার করেছে দেশটি। এর আগে চীন নিশ্চিত করেছিলো যে, মানুষ থেকে মানুষে ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস যা ইতোমধ্যে ছোঁয়াচে আকার ধারণ করছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Sumon ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৪৫ পিএম says : 0
এই জন্যই ইসলাম ধর্ম পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ধর্ম, এমন কোন খাবার মানুষের ক্ষতি হয় ইসলাম ধর্ম হারাম করে দিয়েছেন
Total Reply(0)
Sumon ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৪৫ পিএম says : 0
এই জন্যই ইসলাম ধর্ম পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ধর্ম, এমন কোন খাবার মানুষের ক্ষতি হয় ইসলাম ধর্ম হারাম করে দিয়েছেন
Total Reply(0)
সুমন ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ১০:৪৮ পিএম says : 0
এই জন্য পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ধর্ম ইসলাম ধর্ম, মানুষের ক্ষতি বা সমাজের ক্ষতি হয় এ সব খাবার আল্লাহ পাক হারাম করে দিয়েছেন
Total Reply(0)
Shagor ২৯ মার্চ, ২০২০, ৯:৩৬ এএম says : 0
Sokol ke islami Anderson onusason mane chola uchit
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন