ঢাকা, বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ২১ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

জিহাদের ডাক, ফেব্রুয়ারিতেই কাশ্মীর দখলের হুমকি পাকিস্তানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৩:৪৯ পিএম

অধিকৃত কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে ভারত। এখনও বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা, সেখানকার নেতাদেরও বন্দী করে রাখা হয়েছে। আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর আহ্বানেও কাজ হয়নি। তাই এবার সরাসরি ভারতের বিরুদ্ধে জিহাদের ডাক দিল পাকিস্তানের সাংসদরা। সোমবার পাকিস্তানের সংসদে এই দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানায় তারা। শুধু তাই নয়, আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করে কাশ্মীর দখল করার কথাও বলা হয়েছে। এর ফলে প্রবল উত্তেজনা তৈরি হয়েছে এশিয়ার এই অঞ্চলে।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার পাকিস্তানের একটি রাজনৈতিক দল জমিয়ত উলেমা-ই-ইসলাম-ফজল-এর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কাছে ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করার অনুরোধ করা হয়। এই দলের নেতা মৌলানা আবদুল আকবর ছিত্রালি তো আবার একধাপ এগিয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করার অনুরোধ জানিয়েছে। আর তার এই আবেদনকে সমর্থন জানিয়েছে পাকিস্তানের অধিকাংশ সাংসদ।

মৌলানার দাবি, ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঘোষণা করার মাত্রই সজাগ হয়ে উঠবে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলি। তারপরই কাশ্মীর নিয়ে কয়েক দশক ধরে দু’দেশের মধ্যে যে টানাপোড়েন চলছে তাতে হস্তক্ষেপ করতে বাধ্য হবে। আর এর ফলে সমাধান হবে এই সমস্যার। পাকিস্তানের ওই মৌলবাদী নেতার সমর্থনে সরব হয়ে বিষয়টিকে সমর্থন জানায় পাকিস্তানের বেশিরভাগ সাংসদ। এর ফলে কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামী মানুষের স্বপ্ন ও এই উপমহাদেশকে ভাগ করার সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটিও বাস্তবরূপ পাবে।

অন্য মুসলিম দেশগুলো কাশ্মীরের মানুষের জন্য কিছু করবে না বলে দাবি জানিয়ে মৌলানার কথার সমর্থন করে পাকিস্তানের প্রধান বিরোধী দলনেতা খাজা আসিফ। তার কথায়, ইসলামিক দেশগুলির সংগঠন ওআইসি বর্তমানে মৃত একটি সংগঠন। তিনটি-চারটি দেশ ছাড়া এদের কোনও সদস্য নিজেদেরই রক্ষা করতে পারবে না। তারা কাশ্মীর নিয়ে কী করে কথা বলবে।

তিন ঘণ্টার অধিবেশনের শেষ লগ্নে এই বিষয়ে বক্তব্য রাখতে ওঠে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ে পাকিস্তানের সংসদ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আলি মহম্মদ খান। দেশবাসীর কাছে আহ্বান জানিয়ে বলে, ভারতের বিরুদ্ধে আক্রমণের পরিকল্পনা করে জম্মু ও কাশ্মীর দখল করুন। সূত্র: ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
jack ali ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৯ পিএম says : 0
May Allah [SWT] unite muslim Ummah...all the muslim around the world should fight against those who oppresse muslim around the world... Jihad is obligatory now...
Total Reply(0)
Anwar ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:০৬ পিএম says : 0
অধিকৃত কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে ভারত। সেখানকার নেতাদেরও বন্দী করে রাখা হয়েছে। এই বিষয়ে বক্তব্য রাখতে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর কাছে আহ্বান জানাই।
Total Reply(0)
m h opie ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৫:১৭ পিএম says : 0
পাকিস্তানকে আমি সম্পূর্ণ সমর্থন করি,করে যাব ও পাশে থাকব।
Total Reply(0)
Unknown ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৩ পিএম says : 8
Ei beta China er Uighur der obostha na dekhe Kashmir er dike dekhlo keno??? Saudi Arabia Yemen a jesob korche oisob dekhteche na keno??
Total Reply(1)
Muhammad Saidur Rahman ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ২:৫৭ পিএম says : 4
উইঘুরের অযুহাত দিয়ে তো কাশ্মির অস্বীকার করা যাবে না । উইঘুর ও আমাদের , কাশ্মির ও আমাদের । আপনারা কেন বারবার কাশ্মিরের প্রসঙ্গ উঠলে উইঘুরের ব্যাপারটা সামনে আনেন বুঝি না । সকল জালিমদের শায়েস্তা করতে হবে । যে যেভাবে পারে প্রতিবাদ করতে হবে। একজন আরেকজনের পিছনে লেগে থাকলে কী লাভ হবে ?
Unknown ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১০:৫৪ পিএম says : 6
Ei beta China er Uighur der obostha na dekhe Kashmir er dike dekhlo keno??? Saudi Arabia Yemen a jesob korche oisob dekhteche na keno??
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন