ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

রানওয়ে থেকে ছিটকে তিন টুকরো হয়ে গেল বিমানটি

তুষারধসে নিহত ৩৮ তুরস্কে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

তুরস্কের পূর্বাঞ্চলে দুটি তুষারধসে অন্তত ৩৮ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবারের একটি তুষারধসের ঘটনায় কয়েকজন নিহত হলে তাদের উদ্ধারে যাওয়া দলটির ওপর দ্বিতীয় দফা ধসের ঘটনা ঘটে। বুধবার রাতে একথা জানায় স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। তুরস্কের জরুরি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দেশের পূর্বাঞ্চলীয় ভান প্রদেশে বুধবার দ্বিতীয় তুষারধসের ঘটনা ঘটে। প্রথম ধসের ঘটনায় মঙ্গলবার রাতের দিকে পাঁচজন নিহত হয়। তার মধ্যে দুটি মরদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হচ্ছিল না। এ অবস্থায় ওই দুটি লাশ উদ্ধারে গেলে পরের হিমবাহ ধসের ঘটনা ঘটে। এতে মোট ৫৩ জন আহত হন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফরহাদ উদ্দিন কোসা সতর্ক করে বলেন, হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, অজ্ঞাত সংখ্যক লোক এখনো আটকা পড়ে রয়েছে। ভান প্রদেশের গভর্নর মোহাম্মদ আমীন বলেন, প্রথম ধসে হতাহতদের উদ্ধারের জন্য দুর্যোগপ‚র্ণ আবহাওয়ার মধ্যেও কাজ চলছিল। এর মধ্যেই দ্বিতীয় দফা ধসের ঘটনা ঘটে। অপরদিকে, তুরস্কের ইস্তাম্বুল বিমানবন্দরে একটি যাত্রীবাহী বিমান রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ায় একজন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও দেড় শতাধিক। ভেঙে গেছে বিমানের তিনটি অংশ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়। পেগাসাস এয়ারলাইন্সের ওই বিমানটিতে ১৭১ জন যাত্রী ও ছয়জন ক্রু ছিলেন। ইস্তাম্বুলের সাবিহা গোকসেন বিমানবন্দরে বৃহস্পতিবার এই ঘটনা ঘটে। বোয়িং ৭৩৭-এর বিমানটি যখন অবতরণ করে তখন প্রচুর বৃষ্টি ও বাতাস হচ্ছিলো। এই ঘটনার পর বিমানবন্দর বন্ধ রাখা হয়েছে। তুর্কি সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, বিমানে থাকা বেশিরভাগই তুরস্কের নাগরিক। তবে ২০ জন বিদেশিও ছিলেন বিমানটিতে। ইস্তাম্বুলের গভর্নর আলি ইয়ারলিকায়া বলেন, দুর্ভাগ্যবশত পেগাসাস এয়ারলাইন্সের বিমানটি বৈরি আবহাওয়ার কারণে অবতরণের পর স্থির থাকতে পারেনি। তারা রানওয়ে থেকে ৫০-৬০ মিটার ছিটকে গেছে। আনাদোলু, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন