ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সিলেটে তাবলীগের দুই পক্ষে উত্তেজনা

সিলেট ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

সিলেটে তাবলীগ জামাতের দুই পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে। দক্ষিণ সুরমার বদিকোনায় তাবলীগের সা’দ পন্থীদের এক আয়োজনকে ঘিরে সৃষ্টি হয়েছে এ উত্তেজনা। এই আয়োজনের প্রতিবাদে এবং বন্ধের দাবিতে গতকাল দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুলে অবস্থান ধর্মঘটের ডাক দেয় বিপক্ষ। সংঘর্ষের আশঙ্কায় চন্ডিপুল ও ধরাধরপুরে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। অবস্থান ধর্মঘট বা কোনো ধরনের কর্মসূচির অনুমতি কেউ নেয়নি প্রশাসনের। তবুও যাতে কোন সংঘর্ষের ঘটনা না ঘটে সে জন্য পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।
ভারতের মাওলানা সাদের অনুসারী তাবলীগ জামাতের অবস্থান দক্ষিণ সুরমার বদিকোনায়। সেখানে গত বৃহস্পতিবার সাদ অনুসারী সাথীদের জমায়েতের আয়োজন করা হয়। এই আয়োজনকে ‘দোয়া মাহফিল’ উল্লেখ করে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশকে লিখিতভাবে অবগত করে অনুমতি নেন আয়োজকরা।
এদিকে, এই আয়োজনকে ‘সিলেট জেলা ইজতেমা’ আখ্যা দিয়ে গতকাল দিনভর ফেসবুকে প্রচারণা চালান সাদপন্থী অনেকেই। বৃহস্পতিবার বাদ মাগরিব ‘আব্দুল্লাহ শাকিল’ নামের আইডি থেকে বদিকোনার এই আয়োজনকে ‘ইজতেমা’ উল্লেখ করে তাদের বক্তা আলেম ওয়াসিফুল ইসলামের উদ্বোধনী বয়ান অডিও লাইভ প্রচার করা হয়।
এসব বিষয় ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে আলেম সমাজ ও তাবলীগের অপরপক্ষের সাথীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা। উদ্ভ‚ত পরিস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার বাদ এশা সিলেটের তাবলিগি মারকাজ খোজারখলায় মদিনাতুল উলুম দারুস সালাম মাদরাসার মুহতামিম ও জেলা উপদেষ্টা শায়খুল হাদিস মাওলানা ওলীউর রহমানের সভাপতিত্বে এক পরামর্শ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলার জিম্মাদার সাথী ও বিভিন্ন মাদরাসার দায়িত্বশীলরা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়- বদিকোনায় মাওলানা সাদ অনুসারী তাবলীগ জামাতের এই আয়োজন বন্ধের দাবিতে গতকাল সকাল ১০টায় দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল পয়েন্টে অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করা হয়। পরবর্তীতে সিলেট আলিয়া মাদরাসা মাঠে আঞ্জুমানে খাদিমুল কোরআন আয়োজিত তাফসির মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে আল্লামা নুরুল ইসলাম ওলিপুরি এই কর্মসূচি পালন করার জন্য ধর্মপ্রাণ মানুষদের আহবান জানান এবং নিজে উপস্থিত থাকবেন বলে ঘোষণা দেন।
এ প্রসঙ্গে তেতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. উসমান আলী বলেন, বদিকোনার তাবলিগি মারকাজের মুুরুব্বিরা এখানে তারা একটি দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছেন বলে আমাদের দাওয়াত দিয়েছেন। ‘ইজতেমা’ বলে দাওয়াত দেননি। অপরপক্ষের কর্মসূচির বিষয়েও তিনি কিছু জানেন না।
বদিকোনার আয়োজনের বিষয়ে মাওলানা সাদ অনুসারী সুয়েজ আফজল খান ইনকিলাবকে বলেন, আমরা আল্লার রাস্তায় দ্বীনের কাজে নেমেছি। আমরা বিভেদ নয় ঐক্য চাই। আমাদের মধ্যে কোন বিরোধ নেই। যারা বিরোধিতা করার চেষ্টা করছেন তারা ভুল বুঝছেন। ভুল বোঝাবুঝির অবসান চাই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন