ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পাবনায় নকল ডিটারজেন্ট পাউডার, ২জনের জরিমানা

গোয়েন্দা নজরদারী বাড়ানো হয়েছে

পাবনা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬:২৫ পিএম

পাবনা শহর এবং উপজেলায় ভেজাল ও নকল ডিটারজেন্ট পাউডারে বাজার ছেয়ে গেছে। একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে নামী-দামী কোম্পানীর মোড়াকে এই নকল পাউডারের কারবার করে আসছে। ক্রেতা সাধারণ সরল বিশ্বাসে এই পাউডার ক্রয় করে নিয়ে গিয়ে প্রতারিত হচ্ছিলেন। নকল ও ভেজাল পাউডারের বিষয়টি প্রথমে বুঝতে পারেন, কাপড় ধোয়ার কাজের সাথে জড়িতরা । ওয়াশিং মেশিনে এবং মেন্যুয়াল পদ্ধতিতে কাপড় কাচার পরও কাপাড়-চোপড় ঠিক মতো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন হচ্ছিল না। এই অবস্থাটি প্রশাসনের কানে পৌঁছে যায়। পাবনা প্রশাসন নকল ডিরাজেন্ট পাউডার কারবারীদের ধরতে মাঠে নামেন।
পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় প্রথমে ধরা পরে নকল ডিটারজেন্ট পাউডার কারবারী। এই পাউডার বিক্রির দায়ে আমিন (২৫) ও আব্দুল রউফ (২৪) নামে দুইজনকে জরিমানা করেন বিজ্ঞ ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী কর্মকর্তা। ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান দুুপুরে এই আদালত পরিচালনা করেন।
জানা যায়, এই চক্রটি দীর্ঘদিন যাবৎ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ফেরি করে ইউনিলিভারের রিন ডিটারজেন্টে ন্যায় দেখতে নকল পন্য বিক্রি করে আসছিল। এদের কাছ থেকে ডিটারজেন্ট কিনে প্রতারিত একজন সরদাপাড়া গ্রামের আবদুল ওয়াহাব। আবদুল ওয়াহাব ভাঙ্গুড়া বাজারে তার নিজ দোকানে থাকাকালে নকল পাউডার ফেরি করে বিক্রি করার সময় আটক করেন। এ সময় তাদের সাথে থাকা ইউনুস (২৪) নামে একজন পালিয়ে যায়।
পরে ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশকে খবর দিলে এএসআই সাজেদুর ও এএসআই কামরুজ্জামান ঘটনাস্থলে এসে তাদের কাছে থাকা ৫০০ গ্রাম ওজনের ২৫ প্যাকেট নকল রিন পাউডার জব্দ করে ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সেখানে উপস্থিত হয়ে আটক ২ জনকে ১হাজার টাকা জরিমানা এবং প্রতারণা করবে না মর্মে মুচলেকা দিলে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। এবং জব্দকৃত নকল -ভেজাল ২৫ প্যাকেট ডিটারজেন্ট পাউডার ধ্বংসের জন্য উপজেলা
স্বাস্থ্য পরিদর্শক নুরূল ইসলাম নির্দেশ দিলে জব্দকৃত পাউডার ধ্বংস করা হয়।পাবনার ভাঙ্গুড়ায় নকল ডিটারজেন্ট পাউডার বিক্রির দায়ে রুহুল আমিন (২৫) ও আব্দুল রউফ (২৪) নামে দুইজনকে জরিমানা করছে ভ্রাম্যমান আদালত। ভাঙ্গুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান সোমবার দুুপুরে এই আদালত পরিচালনা করেন।
সূত্র মতে, পাবনা শহরে ঝালাই পট্টি এলাকায় ইতোপূর্বে নকল প্রসাধনী সামগ্রী বিক্রির জন্য কয়েকজন দোকানী জরিমানা করা হয় । পাবনা জেলা পুলিশ প্রশাসন সূত্রে আজ মঙ্গলবার জানা গেছে, নকল-ভেজাল প্রসাধন সামগ্রী, শিশু খাদ্য, কাপড় কাচার পাউডার ধরতে গোয়েন্দা নজরদারী বাড়ানো হয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন