ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জঙ্গিবাদ ইসলামের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক যড়যন্ত্র

৮০ লাখ মাদকসেবী, প্রতিদিন খরচ ২৫০ কোটি

মহসিন রাজু | প্রকাশের সময় : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

র‌্যাবের ডিজি ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, জঙ্গিবাদ হচ্ছে ইসলামের বিরুদ্ধে একটি বড় আন্তর্জাতিক যড়যন্ত্র এবং ইসলামের বিরুদ্ধে চলমান দুশমনির অংশ। জঙ্গিবাদের কারণে মধ্যপ্রাচ্যে চলছে যুদ্ধ, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মুসলমান আর লাভবান হচ্ছে অস্ত্র ব্যবসায়ীরা। ইসলাম ও মুসলমানদের ভাবমূর্তি নষ্ট করাই হচ্ছে জঙ্গীবাদের মূল উদ্দেশ্য ।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে র‌্যাব ডিজি বগুড়া পুলিশ লাইন্স ময়দানে আয়োজিত এক জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে এসব কথা বলেন ।
তিনি বলেন, দেশে ৮০ লাখ মাদকসেবী রয়েছে আর তারা প্রতিদিন প্রায় ২৫০ কোটি টাকা মাদকের পেছনে খরচ করে। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। উন্নয়নের বড় বাধা মাদক ব্যবসা। মাদকের পথ থেকে তারা ফিরে না আসলে পোকা-মাকড়ের মতো খুঁজে খুঁজে তাদের নিশ্চিহ্ন করা হবে।

এ সময় তিনি মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, যারা মাদকের ব্যবসা করে তারা গণশত্রু। বাংলাদেশে আপনাদের স্থান হবে না। এমন কোনো শক্তিধর আপনারা হননি যে আপনারা টিকে থাকবেন। ১৮ কোটি মানুষ আপনাদের একটা একটা করে খুঁজে বের করে দেশ থেকে নিশ্চিহ্ন করবে। আমাদের আগামী প্রজন্মকে ধ্বংস করার ক্ষমতা আপনাদের কেউ দেয়নি। আমরা দেশবাসী মিলে এই গণশত্রুদের সমাজ থেকে পোকামাকড়ের মতো খুঁজে খুঁজে নিশ্চিহ্ন করবো।’

র‌্যাব ডিজি আরো বলেন, রাসুল (সা.) এর ইন্তেকালের কিছুদিনের মধ্যেই বাংলাদেশে সাহাবা, তাবেইন, তাবে তাবেইন এবং আরবীয় মুসলমান বণিকদের মাধ্যমে ইসলামের আগমন ঘটে। পরে মুসলিম শাসনের বিস্তারের পর সুফি দরবেশরা শ্রেণি বৈষম্যের বিপরীতে সাম্য, মৈত্রী এবং সামাজিক ন্যায় বিচারের বাণীর সাথে আধ্যাতিকতার পয়গাম নিয়ে আসলে নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষ দলে দলে ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয় গ্রহণ করে। এদেশে ইসলামের বিস্তারে রাজশক্তির মাধ্যমে হয়নি। এদেশের মুসলমানরা শান্তিপ্রিয়। তারা অশান্তি সন্ত্রাস পছন্দ করে না।

এ সময় সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী রেঞ্জের ডি আই জি এ কে এম হাফিজ আক্তার বিপিএম (বার) , র‌্যাবেব এডিজি (অপারেশন ) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার বিপিএম , পিএসসি।
সমাবেশে অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, র‌্যাব বগুড়া-১২ এর ক্যাম্প ইনচার্জ লে. কর্নেল খায়রুল বাশার, বগুড়া জামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাও. আব্দুল হক, মাও. আব্দুল কাদের, বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল ইসলাম রিপু, মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন বাবলু, বগুড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহমুমুদুল আলম

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
জনবন্ধু ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১:৩২ এএম says : 0
বাংলাদেশে মাদকের ব্যবসা করে নির্লজ্জ পুলিশে. তাদের কে আগে ধরেন.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন