ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

বিপিএলে বসুন্ধরার সাদামাটা শুরু

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৯:৩৮ পিএম

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদাপূর্ণ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) এবার সাদামাটা শুরুই করল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। বৃহস্পতিবার বিকেলে নীলফামারির শেখ কামাল স্টেডিয়ামে হোম ম্যাচে তারা ১-০ গোলে হারায় নবাগত উত্তর বারিধারা ক্লাবকে। বসুন্ধরার কষ্টার্জিত এই জয়ে দলের পক্ষে একমাত্র গোলটি করেন কোস্টারিকার বিশ্বকাপ তারকা ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেস সোলেরা। ম্যাচে বারিধারা প্রায় সমান তালে লড়ে ৮৫ মিনিট পর্যন্ত আটকে রাখে বসুন্ধরাকে। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। পরের মিনিটেই কলিন্দ্রেস গোল করলে ভাগ্য পুড়ে বারিধারার। আর স্বস্তি ফিরে আসে বসুন্ধরা শিবিরে। যদিও বল দখলের লড়াইয়ে কিছুটা এগিয়ে ছিল বসুন্ধরা। তবে উল্লেখ করার মতো আক্রমণ তারা করতে পেরেছে কমই। ৭ মিনিটে কলিন্দ্রেসের শট ক্রসবারের ওপর দিয়ে যায়। ৪০ মিনিটে বারিধারা ফ্রি-কিক থেকে সুযোগ পেয়েও গোল করতে পারেনি। তাদের গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ল্যান্ডিং দারবোর শট বসুন্ধরার গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো ফিরিয়ে দেন।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধে বসুন্ধরা গোলের জন্য মরিয়া হয়েই লড়ে। আর্জেন্টাইন দেলমন্তের বাঁ পায়ের জোরালো শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ৭০ মিনিটে কলিনন্দ্রেসের শট প্রতিহত হয় ক্রসবারে। পাল্টা আক্রমণে গিয়ে ম্যাচের ৮৫ মিনিটে বারিধারা গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল। এসময় তাদের এক ফরোয়ার্ডের প্রচেষ্টা ক্রসবারে লেগে ফিরে আসে। পরের মিনিটেই কাঙ্খিত গোলের দেখা পেয়ে যায় বসুন্ধরা। ম্যাচের ৮৬ মিনিটে বদলি ফরোয়ার্ড মাহবুবুর রহমান সুফিলের ক্রস বারিধারার গোলরক্ষক বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হলে নিখুঁত টোকায় বল জালে ঠেলে দেন কলিন্দ্রেস (১-০)। পিছিয়ে থেকে একবার ম্যাচে সমতা আনার চেষ্টা করেও সফল হয়নি বারিধারা। ফলে শেষ পর্য়ন্ত শূন্যহাতেই ফিরতে হয় তাদের।

বিপিএলের উদ্বোধনী দিন বৃহস্পতিবার তিন ভেন্যুতে মোট তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। বসুন্ধরা ছাড়াও এদিন সন্ধ্যায় ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড ২-০ গোলে হারায় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে। একই সময়ে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ১-১ গোলে ড্র করে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাবের বিপক্ষে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন