ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্র ইরানের কয়েকশত ক্ষেপণাস্ত্রসহ বহু অস্ত্রসস্ত্র আটক করেছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৭ পিএম

চলতি সপ্তাহের শুরুতে আরব সাগরে একটি অভিযানের সময় কয়েকশত ক্ষেপণাস্ত্র, অস্ত্র এবং গোলাবারুদ জব্দ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ধারণা করা হচ্ছে ইরান থেকে ইয়েমেনের হুথি জঙ্গিদের কাছে পাঠানো হচ্ছিলো এই অস্ত্র ও গোলাবারুদ।
এ অভিযানে দেড়শ ট্যাংকবিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র ও তিনটি স্থল থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্রসহ ইরানের উৎপাদিত অস্ত্র জব্দ করার কথা জানিয়েছে মার্কিন নৌবাহিনী। গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্র জানায়, রোববার আরব সাগরে একটি ঐতিহ্যবাহী নৌযান ডোয়ায় করে গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র ক্রুজার নোরম্যান্ডি নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। -খবর রয়টার্সের
এতে আরও জানানো হয়, জব্দ করার অস্ত্রের মধ্যে দেড়শটি ট্যাংকবিধ্বংসী গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র (এটিজিএম) দেহলাভিয়াহও জব্দ করা হয়েছে। রুশ করনেট এটিজিএমের অনুকরণে এসব অস্ত্র নির্মিত হয়েছে। এছাড়াও যেসব অস্ত্র জব্দ করা হয়েছে, তা ইরানি পরিকল্পনায় নির্মাণ করা হয়েছে। যার মধ্যে তিনটি ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্রও রয়েছে।
এর আগে গত নভেম্বরেও এমন অস্ত্র ভান্ডার জব্দ করা হয়েছিল বলে জানায় মার্কিন সেনাবাহিনী। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের জন্য সরবরাহ করা ইরানি অস্ত্র জব্দ করছে যুক্তরাষ্ট্র।
জাতিসংঘের প্রস্তাব অনুসারে, দেশের বাইরে অস্ত্র সরবরাহ, বিক্রি ও হস্তান্তর করতে পারবে না ইরান। তবে নিরাপত্তা পরিষদের অনুমতি থাকলে সেটা ভিন্ন কথা। এছাড়া ইয়েমেনকে কেন্দ্র করে আরেকটি প্রস্তাবনায় হুতি নেতাদের অস্ত্র সরবরাহেও নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলেন যে প্রাথমিক মূল্যায়নে অস্ত্র ও অস্ত্র ব্যবস্থার উপাদানগুলি কোথা থেকে এসেছে তা নিয়ে সন্দেহ নেই। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ডের মুখপাত্র য্যাকারি হ্যারেল বলেন, “সবকিছু ইরানে এই অস্ত্র তৈরির দিকে ইঙ্গিত করেছে, কেননা ইরানে তৈরি করা অস্ত্র সম্পর্কে আমরা যা জানি তার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।"
যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ড জানিয়েছে গত নভেম্বর মাসেও এই একই ধরনের উন্নত প্রযুক্তির ক্ষেপণাস্ত্র অস্ত্র ও গোলাবারুদ আরব সাগরে অন্য একটি অভিযানেও জব্দ করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৫৩ পিএম says : 0
May Allah destroy Houthi shia and Iranian shia... Muslim Killer. Ameen...
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন