ঢাকা, শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬, ০৮ শাবান ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সাটু‌রিয়ায়‌ পড়ার রু‌মে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ, বইয়ের টে‌বি‌লে চি‌ঠি

সাটু‌রিয়া (মা‌নিকগঞ্জ) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৪ পিএম

মা‌নিকগ‌ঞ্জের সাটু‌রিয়া উপ‌জেলায় তাহ‌ামিনা আক্তার না‌মের এক স্কুল ছাত্রীর পড়ার ঘর থে‌কে তার ঝুলন্ত লাশ ও লা‌শের পা‌শে পড়ার ‌টে‌বি‌লে তার মৃত্যুর আগে লেখা চি‌ঠি উদ্ধার করা হ‌য়ে‌ছে।

শ‌নিবার দুপু‌রে সাটু‌রিয়া উপ‌জেলার দরগ্রাম ইউনিয়নের মধ্যরৌহা এলাকা থে‌কে স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদ‌ন্তের জন্য মা‌নিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল ম‌র্গে পাঠায় পুলিশ।

নিহত তাহামিনা আক্তার দরগ্রাম ইউনিয়নের মধ্যরৌহা এলাকার মৃত খোরশেদ আলমের মেয়ে। সে গোপালপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী।
জানা গে‌ছে, তাহা‌মিনা শুক্রবার রা‌তে মা‌য়ের সা‌থে খাবার খে‌য়ে বারান্ধার কোঠায় তার পড়ার ঘ‌রে যায়। প‌রে ম‌ধ্যে রা‌তে তার মা পড়ার ঘ‌রে তাহা‌মিনার ঝুলন্ত লাশ দেখ‌তে পার। আর টে‌বি‌লে বইয়ের উপর এক‌টি বড় সাদা কাগ‌জে লাল ক‌লম দি‌য়ে লেখা এক‌টি চি‌ঠি তা‌তে লেখা, "আ‌মি যা‌নি আমি অ‌নে‌কের সা‌থে খারাপ ব্যবহার ক‌রছি তাই পার‌লে সবাই আমা‌কে মাফ ক‌রে দি‌য়েন। ( আর ইং‌রেজী‌তে বড় ক‌রে লেখা) আই এম স‌রি, মাই ফ্যা‌মি‌লি এন্ড অল ফ্রেন্ডস, গুড বাই ফর ইভার...

তাহা‌মিনার মামা আ: সোবহান জানায়, তাহা‌মিনার সহপাঠী‌দের কাছ থে‌কে জানা গে‌ছে, গোপালপুর এলাকার এক যুবক এর সা‌থে তাহা‌মিনার সম্পক‌ ছিল, সে যুব‌কের কা‌ছে তাহ‌া‌মিনা কিছু ছ‌বি ছিল। ছ‌বি গু‌লো সে যুবক ফেসবু‌কে ছে‌ড়ে দেবার হুম‌কি দি‌য়ে তা‌কে ব্ল্যাক‌মেইল কর‌ছিল। সে কার‌নে সে আত্নহত্যা কর‌তে পা‌রে।
সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মতিয়ার রহমান জানায়, দরগ্রামের মধ্যরৌহা এলাকায় তাহামিনা আক্তার নামের দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার মৃত্যুর কারণ জানতে তদন্ত হবে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর হ‌য়ে‌ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন