ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

আনোয়ার ইব্রাহিমকে চায় না পাকাতান প্রেসিডেন্সিয়াল কাউন্সিল

মাহাথিরই থাকছেন প্রধানমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০৩ এএম

মালয়েশিয়ায় প্রধানমন্ত্রী পদে ড. মাহাথির মোহাম্মদই থাকবেন, নাকি প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী তিনি ক্ষমতা তুলে দেবেন পিকেআর দলের প্রেসিডেন্ট আনোয়ার ইব্রাহিমের হাতে। কিন্তু পাকাতান হারাপানের প্রেসিডেন্সিয়াল কাউন্সিল নেতৃত্ব পরিবর্তনের ক্ষেত্রে আনোয়ার ইব্রাহিমকে চায় না। তারা চায় পার্তি প্রিভুমি বারসাতু মালয়েশিয়ার চেয়ারম্যান ড. মাহাথির মোহাম্মদই ক্ষমতায় থাকুন এবং মেয়াদ পূর্ণ করুন। যদি তা-ই হয় তাহলে, আনোয়ার ইব্রাহিমের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন অধরাই থেকে যেতে পারে। শনিবার রাতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ড. মাহাথির মোহাম্মদ। ওই সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে কখন সরে যাবেন এবং আনোয়ার ইব্রাহিমকে সুযোগ করে দেবেন- এ বিষয়ের দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেছেন, বিষয়টা এখন আমার ওপর নির্ভর করে। ফলে সংবাদ সম্মেলন থেকে যখন সবাই চলে যান তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন উপপ্রধানমন্ত্রী ও আনোয়ার ইব্রাহিমের স্ত্রী ড. উয়ান আজিজাহ উয়ান ইসমাইল। এ সময় তিনি তার স্বামী আনোয়ার ইব্রাহিমের হাত স্পর্শ করে যেন সান্ত¦না দিচ্ছিলেন। যেন ভেঙে পড়ার মুহ‚র্তে তার স্ত্রী তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। এ নিয়ে মালয়েশিয়ার অনলাইন দ্য স্টার একাধিক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হয়েছে, নেতৃত্ব পরিবর্তন নিয়ে পাকাতান হারাপান প্রেসিডেন্সিয়াল কাউন্সিল যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে বিষয়ে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের প্রশমিত ও আশ্বস্ত করে সিদ্ধান্ত মেনে নেয়ার বিষয়ে বল এখন পিকেআর প্রেসিডেন্ট আনোয়ার ইব্রাহিমের কোর্টে। রাজনৈতিক বিশ্লেষক ইউনিভার্সিটি সেইনস মালয়েশিয়ার প্রফেসর ড. সিভামুরুগান পান্ডিয়ান বলেছেন, শুক্রবার রাতে যে বৈঠক হয়েছে তাতে নির্ধারণ করার কথা ছিল যে, প্রধানমন্ত্রী মাহাথির কবে কোন তারিখে ক্ষমতা হস্তান্তর করছেন আনোয়ার ইব্রাহিমের কাছে। কিন্তু তা ঘটেনি। ঘটেছে অন্য ঘটনা। তিনি আরো বলেন, ওই বৈঠকে উপস্থিতরা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদের প্রতিই সমর্থন দিয়েছেন। তারা চাইছেন তিনিই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় থেকে মেয়াদ পূর্ণ করুন। কিন্তু যারা আশা করছিলেন এ বছর যত তাড়াতাড়ি হোক, মে মাস নাগাদ দেশের অষ্টম প্রধানমন্ত্রী হোন আনোয়ার ইব্রাহিম, তাদের পক্ষে এই সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া কঠিন। তারা হয়তো আবেগ দিয়ে এর প্রতিশোধ নিতে চেষ্টা করবেন। যদি আনোয়ার ইব্রাহিম শুক্রবারের সিদ্ধান্ত মানতে তাদেরকে আয়ত্তে আনতে না পারেন তাহলে রাজনৈতিক দৃশ্যপটের অবনতি ঘটবে। তার মতে, নয় মাসের মধ্যে অনেক ঘটনা ঘটে যেতে পারে। যদি জোট সরকারের মধ্যে আভ্যন্তরীণ লড়াই ছাড়াও হুমকি, আস্থায় সঙ্কট অব্যাহত থাকে তাহলে তা ক্ষমতা হস্তান্তরের চেয়ে বড় কিছু হয়ে উঠবে। প্রফেসর ড. সিভামুরুগান পান্ডিয়ানের মতে, যদি পাকাতান জোটের মধ্যে আভ্যন্তরীন লড়াই অব্যাহত থাকে এবং জোটের সদস্যদের মধ্যে বিভক্তি বিস্তৃত হয় তাহলে ক্ষমতাসীন সরকার ভেঙে পড়তে পারে। উদাহরণ হিসেবে যদি পার্তি প্রিভ‚মি বারসাতু মালয়েশিয়া জোট ছেড়ে যায়, একই কাজ করে পিকেআরের ভিতরকার অংশ, তাহলে পাকাতানের সমাপ্তি ঘটবে। এ জন্যই সম্ভবত শুক্রবার রাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের সুনির্দিষ্ট তারিখের জন্য আনোয়ার ইব্রাহিম চাপ দেননি। প্রফেসর ড. সিভামুরুগান পান্ডিয়ান বলেন, এ অবস্থায় আনোয়ার ইব্রাহিমের উচিত হবে শুক্রবারের বৈঠকের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে তার সমর্থকদের রাজি করানো। কারণ, তিনি বর্তমানে ক্ষমতাসীন একজন প্রধানমন্ত্রীকে মোকাবিলা করছেন। আর এই প্রধানমন্ত্রী পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা উপভোগ করছেন। আরেক রাজনৈতিক বিশ্লেষক প্রফেসর ড. নিক আহমেদ কামাল নিক মাহমুদ বলেছেন, শুক্রবারের সিদ্ধান্ত দেশে ক্ষমতা হস্তন্তরের বিষয়ে স্থিতিশীলতা আনতে সহায়তা করতে পারে। জনগণ এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা (অ্যাপেক) পরবর্তী দৃশ্যপটের দিকে তাকিয়ে থাকবে। ড. মাহাথির যে বিবৃতি দিয়েছেন তাতে উত্তর পাওয়ার চেয়ে প্রশ্ন বেশি সৃষ্টি হয়েছে। কারণ, তার বিবৃতিতে কবে তিনি পদত্যাগ করছেন সে বিষয়ে কোন নির্দিষ্টতা নেই। এই অনির্দিষ্টতা সরকারের জন্য ভাল নয়, বিশেষ করে ক্ষমতাসীন জোটের জন্য। ক্ষমতা হাতবদলের তারিখকে কেন্দ্র করে দেখা দিতে পারে অসন্তোষ। এতে জোটের ভিতর আরো ভাঙ্গন দেখা দিতে পারে। এতে আনোয়ার ইব্রাহিমের অনেক সমর্থন সন্তুষ্ট হতে পারেন। আবার অনেকে সতর্ক থাকতে পারেন পরিস্থিতিতে। কিন্তু সরকারের স্থিতিশীলতাকে সবার আগে অগ্রাধিকার দেয়া উচিত আনোয়ারের। পিকেআর এবং পাকাতান জোট বৈঠকের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে- এটা নিশ্চিত করতে তাকে কঠোর কাজ করতে হবে। স্ট্রেইট টাইমস, রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
রিদওয়ান বিবেক ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৬ এএম says : 0
আনওয়ারা ইব্রাহিমকে ক্ষমতা হস্তান্তর করাই ভালো হবে। সে যোগ্য বলে মনে করি।
Total Reply(0)
চাদের আলো ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৭ এএম says : 0
মাহাথির মাহমুদের প্রতিশ্রুতি পূরণ করা জরুরি। পাকাতন কাউন্সিল না চাইলেই তিনি ছেড়ে দিতে পারেন। তার ইচ্ছের উপর নির্ভর করছে।
Total Reply(0)
কামাল ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৮ এএম says : 0
মাহাথির মাহুমদের নেতৃত্বে মালয়েশিয়া দুর্দান্তভাবে এগিয়ে চলেছে, তাকেই তো সবাই চাবে এটাই স্বাভাবিক।
Total Reply(0)
কে এম শাকীর ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৮ এএম says : 0
যে কোনো ধরনের অস্থিতিশীলতা থেকে মালয়েশিয়া মুক্ত থাকুক সেই দোয়া করি। আমিন
Total Reply(0)
জাবের পিনটু ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:৪৯ এএম says : 0
আনোয়ার ইব্রাহিম একজন যোগ্য মানুষ, তার হাতে মালয়েশিয়া অনেক উন্নতি করবে ইনশায়াল্লাহ।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন