ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

ব্যাটিংয়ে স্বস্তির দিন মিরপুরে মিরপুর টেস্ট

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

টেস্ট শুরুর আগে মুমিনুল হক কথা দিয়েছিলেন, অনেক দিনের ব্যর্থতা কাটিয়ে এবার বড় রান করবেন ব্যাটসম্যানরা। যে কারো ব্যাট থেকে আসতে পারে ১০০, ২০০ এমনকি ৩০০ রানের ইনিংসও! মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিং পাওয়া বাংলাদেশ আছে সে পথেই। সেঞ্চুরির আভাস দিয়ে নাজমুল হোসেন শান্ত ফিরে গেলেও অধিনায়কের সামনে তিন অঙ্কের হাতছানি, রান পাচ্ছেন মুশফিকুর রহিমও।
সকালের সেশনে টপাটপ জিম্বাবুয়ের শেষ চার উইকেট তুলে নেওয়ার পর ব্যাটিংয়েও দাপট দেখিয়েছে বাংলাদেশ। শান্ত আর মুমিনুল ছড়িয়েছেন দ্যুতি। তাতে সহজেই লিড নেওয়ার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। গতকাল মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে ৩ উইকেটে ২৪০ রান করেছে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে থেকে মুমিনুলরা পিছিয়ে আছেন আর মাত্র ২৫ রানে।

ব্যাট করার জন্য বেশ ভালো উইকেটে জিম্বাবুয়েকে দ্রæত গুটিয়ে দেওয়ার মিশন নিয়ে নেমেছিল বাংলাদেশ। আবু জায়েদ রাহি আর তাইজুল ইসলামের সামনে কেবল ৩৭ রান যোগ করে বাকি ৪ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। পরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে সাইফ হাসানকে হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ। কিন্তু এরপরই বাংলাদেশকে দেখা গেছে স্বচ্ছন্দ, নির্ভার। দ্বিতীয় উইকেটেই খেলা সহজ করে দেন তামিম ইকবাল ও শান্ত। সাবলীল ব্যাট করে জুটি বাড়াতে থাকেন তারা। ৭৮ রানের জুটির পর ডোনাল্ড টিরিপানোর বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ৪১ রান করে ফিরে যান তামিম। তাতে অস্বস্তি বাড়েনি। তৃতীয় উইকেটেও ভালো জুটি পায় বাংলাদেশ।

শান্তর সঙ্গে মিলে মুমিনুল যোগ করেন ৭৬ রান। দারুণ খেলতে থাকা শান্ত এগুচ্ছিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির দিকে। কিন্তু চার্লটন টুসুমার বলে বাজে শটে ছুঁড়ে দেন নিজের উইকেট। কিন্তু চতুর্থ উইকেটেও আরেক জুটি পেয়ে গেছে বাংলাদেশ। মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে ৬৮ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে দিন শেষ করেছেন মুমিনুল। ১২০ বলে ৯ চারে ৭৯ রান করে অপরাজিত আছেন বাংলাদেশ। ৬৮ বলে ৬ চারে ৩২ রান নিয়ে খেলছেন মুশফিকুর রহিম।

শুরুতে সাইফের বিদায়ে অর্ডার ভেঙে পড়ার যে শঙ্কা ভর করেছিল, অভিজ্ঞ তামিমকে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে তা সামাল দিয়েছেন শান্ত। পরে মুমিনুলকে নিয়ে এগিয়ে গিয়েছিলেন সেঞ্চুরির দিকে। বিসিএলে তৃতীয় রাউন্ডে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলের হয়ে গত সপ্তাহেই খেলেছেন অপরাজিত ২৫৩ রানের ইনিংস। এর আগে বিপিএলে সেঞ্চুরি করেছিলেন। ব্যাট হাতে রান পাচ্ছেন প্রায় সব জায়গায়। ঘরোয়া ক্রিকেটের ফর্ম আন্তর্জাতিক পর্যায়েও টেনে এনেছেন নাজমুল। পেয়েছেন ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি। দিন শেষে তরুণ এই ওপেনারের কণ্ঠে তাই ফুটলো স্বস্তি, ‘‘এ’ দলে ছিলাম। নির্বাচকেরা আমাকে সুযোগ দিয়েছেন এসব জায়গায়, এতে আমার ভালো হয়েছে। প্রত্যেক ক্রিকেটারেরই এমন সুযোগের দরকার আছে। আমি এখন মাঠে নামলে আগের তুলনায় বেশি স্বাচ্ছন্দ্য থাকি। এটা গুরুত্বপ‚র্ণ।’

ঠিক এই জায়গাতেই অস্বস্তি জিম্বাবুয়ের। দিন শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা ক্রেইগ অরভিনের কণ্ঠেও শান্ত স্তুতি, ‘আমরা তাকে লম্বা সময়ের জন্য শান্ত রাখতে পারিনি। আমার মতে, সে খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। অবশ্যই বোলিংয়ের দিক থেকে আজকের দিনটা হতাশাজনক। আমরা ভালো জায়গায় লম্বা সময় ধরে বোলিং করে যেতে পারিনি। কোনো কোনো সময়ে আমরা ভালো বোলিং করেছি, কিন্তু বাউন্ডারি দিয়ে চাপটা সরিয়ে দিয়েছি।’

৭৯ রানে খেলছেন মুমিনুল। অধিনায়কের সঙ্গে ৬৮ রানের জুটি গড়া মুশফিক ব্যাট করছেন ৩২ রানে। বাংলাদেশ এখনও পিছিয়ে ২৫ রানে। তবে সফরকারীদের যে রানের পাহাড়ে চাপা দেওয়ার সামর্থ্য এই দু’জনের আছে, জানা আছে আরভিনের, ‘অবশ্যই কাল (আজ) এই ভুল সংশোধনের দিকে তাকিয়ে আছি। আমরা জানি, ওরা দু’জনই লম্বা সময় ধরে ব্যাট করতে পারে। আমরা ওদের দ্রæত ফেরানোর চেষ্টা করব।’

স্কোর কার্ড
বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে, একমাত্র টেস্ট
টস : জিম্বাবুয়ে (ব্যাটিং), মিরপুর
জিম্বাবুয়ে ১ম ইনিংস (আগের দিন ৯০ ওভারে ২২৮/৬) মাসভাউরি ৬৪, অরভিন ১০৭, সিকান্দার ১৮, টেলর ১০, চাকাভা ৯*, তিরিপানো ০*; রাহী ২/৫১, নাঈম ৪/৬৮)
রান বল ৪ ৬
চাকাভা ক নাঈম ব তাইজুল ৩০ ৭৪ ৩ ০
তিরিপানো ক লিটন ব রাহী ৮ ৩১ ২ ০
এনলভু এলবি ব রাহী ০ ৬ ০ ০
তিশুমা এলবি ব তাইজুল ০ ৪ ০ ০
নিয়াউচি অপরাজিত ৬ ১৩ ১ ০
অতিরিক্ত (বা ৪, লেবা ৪, ও ৫) ১৩
মোট (অলআউট, ১০৬.৩ ওভারে) ২৬৫
উইকেট পতন : ১-৭ (কাসুজা), ২-১১৮ (মাসভাউরি), ৩-১৩৪ (টেলর), ৪-১৭৪ (সিকান্দার), ৫-১৯৯ (মারুমা), ৬-২২৬ (অরভিন), ৭-২৪০ (তিরিপানো), ৮-২৪৪ (এনলভু), ৯-২৪৫ (তিশুমা), ১০-২৬৫ (চাকাভা)।
বোলিং : এবাদত ১৭-৮-২৬-০, রাহী ২৪-৬-৭১-৪, নাঈম ৩৮-৯-৭০-৪, তাইজুল ২৭.৩-১-৯০-২।
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস রান বল ৪ ৬
তামিম ক চাকাভা ব তিরিপানো ৪১ ৮৯ ৭ ০
সাইফ ক চাকাভা ব নিয়াউচি ৮ ১২ ২ ০
শান্ত ক চাকাভা ব তিশুমা ৭১ ১৩৯ ৭ ০
মুমিনুল ব্যাটিং ৭৯ ১২০ ৯ ০
মুশফিক ব্যাটিং ৩২ ৮৬ ৬ ০
অতিরিক্ত (বা ৪, লেবা ১, নো ২, ও ২) ৯
মোট (৩ উইকেট, ৭১ ওভারে) ২৪০
উইকেট পতন : ১-১৮ (সাইফ), ২-৯৬ (তামিম), ৩-১৭২ (শান্ত)।
বোলিং : তিরিপানো ১৫-৩-৪০-১, নিয়াউচি ১৩-২-৪১-১, সিকান্দার ২২-১-৭৫-০, তিশুমা ১২-০-৪৬-১, এনলভু ৯-১-৩৩-০।
*দ্বিতীয় দিন শেষে

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন