ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বঙ্গবন্ধু কর্ণার ও জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা ঘড়ির উদ্ধোধন

বেনাপোল কাস্টমস হাউস

বেনাপোল অফিস | প্রকাশের সময় : ৩ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

পরাধীনতার অন্ধকার থেকে স্বাধীনতার মুক্তি, বাঙ্গালি জাতির পরম প্রাপ্তি- এই স্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল সোমবার বিকেলে বেনাপোল কাস্টমস হাউসে ”বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন ও জন্ম শতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা ঘড়ির উদ্ধোধন করেন কাস্টমস কমিশনার বেলাল হোসেন চৌধুরী। উদ্বোধনকালে সাথে ছিলেন, কাস্টমস’র অতিরিক্ত কমিশনার ড. নেয়ামুল ইসলাম, যুগ্ম কমিশনার শহিদুল ইসলাম, ডেপুটি কমিশনার পারভেজ খান চৌধুরী, সহকারী কমিশনার উওম চাকমা ও মুর্শিদা খাতুন, সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন, বেনাপোল প্রেসক্লাবের সভাপতি মহসিন মিলন, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুর রহমান রাশু।
কমিশনার বেলাল হোসেন চৌধুরী বলেন, ভাষা আন্দোলন থেকে স্বাধীনতার আলোক বর্তিকা সুদূর অন্ধকার বন্ধুর পথ মাড়িয়ে বঙ্গবন্ধু আমাদের এনে দিয়েছেন স্বাধীনতা। তিনি বাঙ্গালি জাতিকে অমানিশামুক্ত করতে নিজের সমগ্র জীবন বিপন্ন করেছেন। আজ আমরা আলোর ভূবনে বর্ণময়।
মানুষের জীবন আলো আঁধারময়। জ্ঞান, বুদ্ধি, চিন্তা চেতনার বিকাশ, স্বাধীনতা অর্জন প্রভৃতির মধ্য দিয়ে আঁধার কেটে আলোর পথের দিশা পেয়ে থাকে। বঙ্গন্ধুর জীবনাচরণ আমাদের সে শিক্ষা দেয়। বাঙ্গালি জাতি শোষণ নিষ্পেষণের মধ্যে জর্জরিত আঁধার জীবনে বঙ্গবন্ধু ছিলেন আলোর দিশা। বঙ্গবন্ধুর দীর্ঘসংগ্রাম মুখর জীবন দাবার ছকের মতো সাদা-কালো মোড়ানো। জীবনব্যাপী প্রাসাদ ষড়ন্ত্রের মোকাবেলা করে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর ক‚টবুদ্ধি পরাভূত করে বিশ্বের শত ক‚টচাল মাড়িয়ে তিনি বিজয়ী হয়েছেন। বঙ্গন্ধুর জীবনাচারের অন্ধকারের মানে সংগ্রাম ও দুর্দম আলোকিত অবদানে উদ্বুদ্ধ হয়ে আমরা ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ সাজিয়েছি। সংগ্রামের বিভিন্ন পর্যায় এখানে সাদা কালোয় বিভিন্ন ছকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন