ঢাকা, শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭, ১২ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

গ্রামীণফোন সংক্রান্ত জটিলতা : নরওয়ে সন্তোষজনক সমাধান চায়

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

 গ্রামীণফোনের বকেয়া পাওনা সংক্রান্ত জটিলতা সমাধানে বাংলাদেশের সঙ্গে পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সন্তোষজনক উপায়ে সমাধানে আসতে চায় নরওয়ে। বিষয়টি নিয়ে নরওয়ের মধ্যে কিছু উদ্বেগ রয়েছে, সেটা বাংলাদেশকে জানিয়েছে দেশটি।
গতকাল মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশ ও নরওয়ের মধ্যে পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ে বৈঠক হয়। বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। অন্যদিকে নরওয়ের পক্ষে দেশটির পররাষ্ট্র সচিব তোরে হাটরেম নেতৃত্ব দেন। বৈঠক শেষে দুই সচিব সাংবাদিকদের সামনে ব্রিফ করেন। নরওয়ের পররাষ্ট্র সচিব তোরে হাটরেম বলেন, বৈঠকে গ্রামীণফোন ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক বোঝাপড়া ও সন্তোষজনক উপায়ে এই সমস্যার সমাধান চায় নরওয়ে। বিষয়টি এখন কোর্টে রয়েছে। এই বিষয়ে আমাদের কিছু উদ্বেগ রয়েছে, সেটা আমরা বৈঠকে জানিয়েছি। গত বছরের ২৪ নভেম্বর দেশের সর্বোচ্চ আদালত বিটিআরসির নীরিক্ষা দাবির ১২ হাজার কোটি টাকার মধ্যে ২ হাজার কোটি টাকা তিন মাসের মধ্যে পরিশোধ করতে গ্রামীণফোনকে সময় বেঁধে দিয়েছিলেন। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনে (বিটিআরসি) এক হাজার কোটি টাকা জমা দিয়েছে গ্রামীণফোন।

এ প্রসঙ্গে মাসুদ বিন মোমেন বলেন, আমরা গ্রামীণফোনের সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছি। আপনারা জানেন, ইতোমধ্যে কোর্টের নির্দেশে তারা এক হাজার কোটি টাকা জমা দিয়েছে। আগামী তিন মাসের মধ্যে আরও এক হাজার কোটি টাকা জমা দেবে। এরপরে কী হবে সেটি নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি।

বৈঠকে নরওয়ে বাংলাদেশের কাছে আদালতের রায়ের পূর্ণ কপি চেয়েছেন বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব। এ বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল অফিসের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন বলেও জানান সচিব।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, টেলিনর কোম্পানিতে নরওয়েজিয়ান কোম্পানির শেয়ার আছে। আমরা চাইব এটার সমাধান হোক। এটার সমাধান হলে দুই দেশের জন্য ভালো হবে। আর এতে করে নরওয়ে থেকে আরও বিনিয়োগ আসবে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন