ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ফের কষ্টের জয় বসুন্ধরা কিংসের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ মার্চ, ২০২০, ৭:৪৩ পিএম

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদাপূর্ণ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ফের কষ্টের জয় পেল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে তারা ২-১ গোলে হারায় রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটিকে। বিজয়ীদের পক্ষে

কোস্টারিকান ফরোয়ার্ড ডেনিয়েল কলিন্দ্রেস ও কিরগিজস্তানের মিডফিল্ডার দুশাবেকভ একটি করে গোল করেন। রহমতগঞ্জের হয়ে উজবেকিস্তানের ফরোয়ার্ড আকোবির তুরায়েভ একমাত্র গোলটি শোধ দেন।

ঘরোয়া ফুটবলে চলতি মৌসুমের প্রথম আসর ফেডারেশন কাপের ফাইনালেও মুখোমুখি হয়েছিল রহমতগঞ্জ-বসুন্ধরা। সেখানে ২-১ গোলে জিতেছিল বসুন্ধরাই। এছাড়া গত প্রিমিয়ার লিগেও দু’বার রহমতগঞ্জকে হারিয়েছিল দলটি (১-০ এবং ৩-২ গোলে)। তবে পরিসংখ্যানে দেখা যায়, প্রতি ম্যাচেই বসুন্ধরা কিংসের জয়কে কষ্টসাধ্য করে তোলে জায়ান্ট কিলার খ্যাত রহমতগঞ্জ।

বুধবারও এর ব্যাতিক্রম ছিল। এদিন ম্যাচের ৪ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা কিংস। এসময় অধিনায়ক ও লেফট উইঙ্গার ডেনিয়েল কলিন্দ্রেস এবং মিডফিল্ডার মোহাম্মদ ইব্রাহিম নিজেদের মধ্যে আদান-প্রদান করে বল নিয়ে ঢুকে পড়েন প্রতিপক্ষের বক্সের ভেতরে। তারপর ডান পায়ের গড়ানো শট নেন কলিন্দ্রেস। ঝাঁপিয়ে পড়েও সে বলের নাগাল পাননি জাতীয় দলের সাবেক গোলরক্ষক রাসেল মাহমুদ লিটন (১-০)। চলতি লিগে এটা কলিন্দ্রেসের তৃতীয় গোল। ৩৯ মিনিটে সমতায় ফেরে রহমতগঞ্জ। অনেকটা ভাগ্যক্রমেই গোলটি পেয়ে যায় তারা। কিংসের বক্সের ভেতরে ঢুকে ডিফেন্ডার মাহমুদুল হাসান কিরণ জোরালো গড়ানো শট নেন। সেই শট ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ফিরিয়ে দিলেও নিজের নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হন কিংসের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। সুযোগটি কাজে লাগাতে ভুল করেননি তার খুব কাছেই দাঁড়িয়ে থাকা উজবেক ফরোয়ার্ড তুরায়েভ আকোবির। বল জালে জড়িয়ে দিয়ে সতীর্থদের সঙ্গে উল্লাসে মেতে ওঠেন তুরায়েভ (১-১)। মিনিট ছয়েক পর অবশ্য ফের এগিয়ে যায় বসুন্ধরা। ডান প্রান্ত দিয়ে বল নিয়ে মিডফিল্ডার বিপলু আহমেদ কাটব্যাক করে দেন তার সতীর্থ আরেক মিডফিল্ডার কিরগিস্তানের বখতিয়ার দুশাবেকভকে। চলন্ত বলেই ডান পায়ের তীব্র শটে গোল করেন তিনি (২-১)। বাকি সময় আর কোন গোল না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে বসুন্ধরা। এই জয়ে চার ম্যাচে ১০ পয়েন্ট পেলেও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে সাইফ স্পোর্টিং ক্লার পরেই তৃতীয়স্থানে জায়গা হলো বসুন্ধরা কিংসের। সমান ম্যাচে ১ পয়েন্ট পাওয়া রহমতগঞ্জের অবস্থান ১৩ দলের মধ্যে সবার শেষে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন