ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ শাবান ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

মাদরাসার গেট ভাঙচুরের প্রতিবাদে মানববন্ধন

পটিয়া (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ মার্চ, ২০২০, ১২:০৩ এএম

পটিয়া উপজেলাধীন কচুয়াই ইউনিয়নে অবস্থিত লেওয়া-ই আহমদিয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসা ও এতিমখানার গেট ভাঙচুরের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে মাদরাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় মাদরাসা থেকে মিছিল নিয়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে এসে অবস্থান নেয় এবং গেট ভাঙচুরের প্রতিবাদসহ মানববন্ধন কর্মসূিচ পালন করে।
এদিকে ৪ দফায় মাদরাসার গেট ভাঙচুর করায় মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল আলম ফকির পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সওজ দোহাজারী বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহ এর বিরুদ্ধে গত ২ মার্চ একটি মামলা দায়ের করেছে। প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আবদুল আলম ফকির। এতে আরও বক্তব্য রাখেন মাওলানা মো. নুরুল আলম, আমিনুল ইসলাম আলকাদেরী, মাওলানা মিজানুর রহমান, ইয়াছিন উল্লাহ আলকাদেরী প্রমুখ।
মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা আবদুল ফকির বলেন বহু কষ্টে ও পরিশ্রমের মাধ্যমে ১৯৮৫ সালে আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভান্ডারীর সহযোগিতায় আবদুল আলম ফকির এ মাদরাসা ও এতিমখানা প্রতিষ্ঠা করা হয়। মাদরাসা ও এতিমখানার লোকজনের কাছে পরিচিতির জন্য মহাসড়কের পাশে সওজ’ এর জায়গা বাদ দিয়ে গেট স্থাপন করা হয়। কিন্তু অহেতুক সওজ দোহাজারী বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর নির্দেশে প্রায় ৪ দফা এ গেট ভাঙচুর করেছে। বিষয়টি বারবার নির্বাহী প্রকৌশলীকে জানানোর স্বত্বেও তিনি কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। প্রতিহিংসার বশিভূত হয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী বারবার এ গেট ভাঙচুরের নির্দেশ দিচ্ছে। তিনি এ ব্যাপারে সওজ এর উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষ ও যোগাযোগ মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন